কালীগঞ্জে সাইনবোর্ড লাগানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ৭

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সাইনবোর্ড লাগানোকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওয়ার্ড যুবলীগের সম্পাদক আমির আলীসহ ৭-৮ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় শহরের সরকারী এমইউ কলেজের পেছন গেটের সন্মুখে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, বিকালে কলেজে গেটের সামনে একটি সরকারী খাস জমিতে স্থানীয় এলাকাবাসীরা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগারের সাইন বোর্ড স্থাপন করেন। কিন্তু এ নিয়ে পৌর ২ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আমির হোসেন ও কালীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঔক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রশাান্ত কুমার খা ওই খাস জমিটি নিজ নিজ ব্যাক্তিগত ভাবে আয়ত্বে রাখতে পাঠাগারের বিরোধিতা করেন।

এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডায় এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা এমইউ কলেজের কর্মচারী কলেজ পাড়ার আমির হোসেন (৩০), তার ভাই অহিদুল (৩২) ও কদম আলী (২২) এবং পাঠাগারের সদস্য বাকুলিয়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম (৩০) ও রুবেল হোসেন (২৮) সহ ৭-৮ জন যুবক জখম হয়। আহতদেরকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চলছে।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনজার্জ ইউনুচ আলী জানান জানান, সংঘর্ষের খবর শুনে এসআই জাহিদ ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। সেখানে দুই পক্ষের মধ্যে কিল ঘুষির ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছেন। কিন্তু সেখানে কাউকেই পাননি বা থানাতে এখনো কেউ কেন অভিযোগ দেয়নি।

এদিকে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর নামে পাঠাগার স্থাপনের জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, ওই জমিতে বঙ্গবন্ধু পাঠাগারই স্থাপন করা হবে। কারো ব্যক্তিগত ভাবে জায়গাটি হওয়া উচিত না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here