কাঞ্চননগর মডেল স্কুলের সেই লিয়াকত ভাই ভালো নেই……

www.newsjhenaidah.com আসিফ কাজল ভায়ের ফেসবুক ওয়াল থেকে

সেই ১৯৮৫ সালের কথা। ভর্তি হলাম ঝিনাইদহ শহরের নামি স্কুল কাঞ্চননগরে। তখনকার এমপিসহ ডিসি এসপি সাহেবদের ছেলে মেয়েরা পড়তেন স্কুলটিতে। স্কুলে ভর্তি হয়ে ছাত্রবন্ধু হিসেবে যাদেরকে পেয়েছিলাম তাদের মধ্যে ছিলেন লিয়াকত ভাই, রেবা আপা ও বজলু ভাই। আজ তাদেরই একজন লিয়াকত ভাইকে আমি আমাদের পাড়ায় দেখে আবাক হলাম। কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম আপনার নাম কি ? জবাব আসলো লিয়াকত হোসেন। তিনি নিজেই বললেন বাড়ি আমার বইড়াতলা। লিয়াতক ভাইকে এ ভাবে দেখে বুকটা ফেটে যেতে লাগলো।ক্লাসে কত পানি টেনে পান করিয়েছেন লিয়াতক ভাই। ঝলমুড়ি কত কি লিয়াকত ভাই যোগান দিয়েছেন। আজ আমার পাড়ারই নাইটগার্ড ? ওহ খোদা যদি আর্থিক সঙ্গতি আপনি আমাকে দিতেন তবে লিয়াকত ভাইকে আমি, আমি, আমি। অসমাপ্ত থাকা এমন কথা অন্তর থেকে বের হচ্ছিল। নিজেকে সংযত করে আমি বললাম আমাকে চিনেন লিয়াতক ভাই ? উত্তর এলো না। সেই 31 বছর আগের কথা। টগবগে তরুন ছিলেন আজকের লিয়াতক ভাই। আজ আমার বয়সই 45+ তিনি আমাকে চিনবেন কি করে ? নাম বললাম আমি কাজল। লিয়াকত ভাইয়ের চোখ থেকে অশ্রু গড়িয়ে আমার গায়ে পড়লো। তুমি সেই ফুটবলার কাজল না। আমি বললাম আমার সবচে বড় পরিচয় আমি কাঞ্চননগর স্কুলের ছাত্রটি। ইস আগে জানলে তোকে পরিচয়টা দিতাম না রে। তারপর অনেক কথা। লিয়াকত ভাই আর আমি ফিরে গেলাম অতীত স্মৃতিতে। কত মধুর স্মৃতি তিনি বলতে লাগলেন একান্তে পেয়ে। জগলু ভাই, নাদিম, ভাই, উষা আপা, নাসরিণ, রাসেল, শক্তি, মুক্তি, লাভলু, শাহিন ভাই, মাসুদ, ফিরোজ, রেজাউল, মামুন, আকতার, নিপা, লুনা, রিপনসহ কত ছাত্রের নাম বলতে লাগলেন। আমি শুধু বললাম কাজল বাদে বাকরা সবাই সুপ্রতিষ্ঠিত। শুনে ঘুট ঘুটে অন্ধকারের সামান্য আলোয় আবারও মুখ তুলে তাকালেন আমার দিকে। তুমি ? হ্যা আমি সাংবাদিকতা করি। লিয়াকত ভাইয়ের দুদর্শা শুনে মনে হলো কাঞ্চননগরের অনেক ছাত্র আজ ডিসি, এসপি, ম্যাজিষ্ট্রেট, বড় ব্যবসায়ী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ারসহ প্রবাসে আয়েশে জীবন কাটাচ্ছেন। ছাত্র জীবেন যার হাতে এক গ্লাস পানি খেয়েছি, সেই লিয়াকত ভাইয়ের জন্য কি আমরা কিছু করতে পারি না ? আশা করি এক্স-কাঞ্চননগরীয়ানা এগিয়ে আসবেন। তার সাথে যোগাযোগের ঠিকানা: 01871647611 এটা তার ছেলের নাম্বার।

কাঞ্চননগর মডেল স্কুলের সেই লিয়াকত ভাই ভালো নেই……

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here