ঝিনাইদহের বাজার গোপালপুরে জমে উঠেছে পশুর হাট

সুলতান আল একরাম
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বাজার গোপালপুরে নতুন রুপে জমে উঠেছে পুরাতন পশুর হাটটি। দুর দুরন্ত থেকে ক্রেতা বিক্রেতারা তাদের প্রয়োজনীয় পশু কেনা বেচার জন্য হাটে ভিড় জমাচ্ছে। এই হাটটি অনেক পুরাতন হলেও দীর্ঘদিন ধরে ঝিমিয়ে পড়েছিল। এখানে বাইরে থেকে কোন ব্যাপারী আসতো না বলে গরু ছাগল বিক্রেতারাও তাদের পশু নিয়ে এই হাটে আসতো না। হটাৎ করে মালিকানা পরিবর্তন হওয়ায় আবার নতুন করে জমে উঠেছে এই হাটটি। সোমবার সরেজমিনে হাটে গিয়ে দেখা যায় এই হাটে বিক্রেতারা তাদের শত শত গরু, মহিষ, ছাগল বিক্রয় করার জন্য নিয়ে আসছে। হাটের ইজারাদাররা অগ্রীম হাট পেয়ে বেজায় খুশি এবং পশু ক্রেতা ও ব্যাপারীদের যথেষ্ট পরিমান সুযোগ সুবিধাও দিচ্ছেন। গরু মহিষ ক্রয় করলে অন্যান্য হাটের তুলনায় অনেক কম মূল্যে টোল আদায় করা হচ্ছে। হাটটি নতুন ভাবে জমে উঠায় এলাকাবাসীর মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। হাটে ব্যাপারীদের জন্য আলাদা পুরষ্কারের ব্যবস্থাও করেছেন হাট মলিকরা। সোমবার সাপ্তাহিক পশুর হাটে হাট মালিকদের পক্ষ থেকে দুইজন ব্যাপারীকে বিশ হাজার টাকা পুরষ্কার প্রদান করেন। ব্যাপারীরা হলেন সব্দুল বিশ্বাস এবং মান্নান মুন্সি। তারা দুজনে এই হাট থেকে ৪৪টি গরু ক্রয় করে বিক্রয়ের জন্য ট্রাকযোগে ঢাকায় পাঠালেন। আগামী ১৪এপ্রিল বাংলা ১লা বৈশাখ থেকে নতুন মালিকরা হাট পাওয়ার কথা থাকলেও ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ইউএনও এক মাস আগে থেকেই এই হাটের টোল আদায় করার সুযোগ দিয়েছেন এই নতুন মালিকদের। এই পশু হাটের নতুন মলিক ইচাহক আলী ও তার সহযোগী কবির হোসেন জানান এই হাটটি দীর্ঘদিন যাবৎ অবহেলিত ছিল আমরা নতুন ইজারা পেয়ে এই হাটের পুরাতন ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। তারা আরও জানান এই হাটে পশু ক্রেতা বিক্রেতাদের যথেষ্ট পরিমান সুযোগ সুবিধা দিচ্ছি আশাকরি আগামী ঈদ পযর্ন্ত আমরা পুরাতন এই হাটটি নতুন রুপে জমজমাট পশু হাটে রুপান্তরিত করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here