২৬ শে ফ্রেবুয়ারি থেকে নোবিপ্রবিতে স্নাতক ১ম বর্ষের ভর্তি শুরু

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর শূন্য আসনে ভর্তির জন্য অপেক্ষমান তালিকা এবং বিভিন কোটায় শিক্ষার্থীদের ভর্তির ২৬ শে ফেব্রুয়ারি ( শনিবার) থেকে শুরু হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় এ, বি এবং সি গ্রুপের মেধাতালিকা থেকে যারা ইতিমধ্যে অনলাইনে ভর্তি ফি প্রদান করেছেন, আসন খালি থাকা সাপেক্ষে কাগজপত্র জমা দিয়ে ভর্তি প্রক্রিয়া ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ সকাল ১০.০০টা থেকে বিকাল ৫.০০টা পর্যন্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

ডি, ই ও এফ গ্রপের শিক্ষার্থী, যারা ইতিমধ্যে টাকা জমা দিয়েছেন তারা ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ভর্তি হবেন। ভর্তির স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) এ।

অন্যদিকে, আসন খালি থাকা সাপেক্ষে অপেক্ষমান তালিকা থেকে এ, বি ও সি গ্রুপের শিক্ষার্থীরা ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ভর্তি হবেন। সকাল ১০.০০টা থেকে বিকাল ৫.০০টা পর্যন্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটরিয়ামে ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে।

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২ আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ডি, ই, এফ গ্রুপ এবং বিভিন্ন কোটার শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে। সকাল ১০.০০টা থেকে বিকাল ৫.০০টা পর্যন্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটরিয়ামে ভর্তির কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষার্থীদের স্ব-শরীরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে উপরে উল্লেখিত তারিখে ভর্তি ফি, সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে ভর্তি সম্পন করতে হবে।

ভর্তির জন্য যেসব কাগজপত্র জমা দিত হবে তা হলো:
ক. গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার পর্যবেক্ষক কর্তৃক স্বাক্ষরিত প্রবশপত্র।
খ. গ্রুপ ভিত্তিক চয়েস ফরম অনলাইন থেকে সংগ্রহ ও পূরণ করে প্রিন্ট কপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।
গ. এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার মূল মার্কশিট এবং প্রত্যকটির একটি করে ফটোকপি অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে ।
ঘ. সাম্প্রতিক তোলা তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি।
ঙ. নাগরিকত্ব সনদ/জন্ম নিবন্ধন সনদ/পাসপোর্ট-এর ফটোকপি।
চ. মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের পিতা-মাতার অনুকূল সরকার কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট এবং প্রয়োজনীয় দাদা-দাদি, নানা-নানির সম্পর্কের বিষয় নিশ্চিত করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ/পৌরসভা/সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক প্রদত্ত এবং জেলা/উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল কর্তৃক সত্যায়িত পিতা-মাতার ওয়ারিশ সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্রের মূলকপি এবং ফটোকপি।
ছ. ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠি (উপজাতি) প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উপজাতিভিত্তিক প্রত্যায়নপত্রের মূলকপি ও ফটোকপি।
জ. হরিজন/দলিত সম্প্রদায়, প্রতিবন্ধী (দৃষ্টি, বাক ও শ্রবণ) এবং খেলোয়াড় (শুধু বাংলাদশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের) কোটায় ভর্তির অনুমতিপ্রাপ্ত প্রার্থীদের ভর্তির সময় যথাযথ প্রত্যয়নপত্র ও সনদপত্রের মূলকপি এবং ফটোকপি আনতে হবে।
উল্লেখ্য, ভর্তি ফি অগ্রণী ব্যাংক লি: নোবিপ্রবি শাখা, অফিস চলাকালীন সময় জমা দিয়ে ভর্তি হতে হবে।

ফাহাদ/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.