‘১৯৪৫ সালের পর ইউরোপে সবচেয়ে বড় যুদ্ধের পরিকল্পনা করছে রাশিয়া’

রাশিয়া ১৯৪৫ সালের পর ইউরোপে সবচেয়ে বড় যুদ্ধের পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। জার্মানির মিউনিখ শহরে বসে বিবিসির সোফি রাওয়ার্থকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একটি বার্ষিক নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে বিশ্বনেতারা এখন মিউনিখে অবস্থান করছেন। সেখান থেকে বরিস জনসন বলেছেন, ‘তথ্যপ্রমাণ বলছে, রাশিয়া ১৯৪৫ সালের পর ইউরোপে সবচেয়ে বড় যুদ্ধের পরিকল্পনা করছে।’ পরিকল্পনার বাস্তবায়ন এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

গোয়েন্দা তথ্যের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রাশিয়া এমনভাবে আগ্রাসন শুরু করতে চায়, যেন তা ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভকে ঘিরে ফেলে। যুদ্ধে যে শুধু জীবনেরই ক্ষয় হবে, সেটা মানুষকে বুঝতে হবে।’

এদিকে, ওয়াশিংটন বলছে, বর্তমানে ইউক্রেন সীমান্তে ১ লাখ ৬৯ হাজার থেকে ১ লাখ ৯০ হাজারের মতো রুশ সেনা অবস্থান করছে। পশ্চিমা দেশগুলোও সতর্ক করে বলছে, রাশিয়া যেকোনো সময় হামলা করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.