September 28, 2022

হরিনাকুণ্ডু প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান সহ স্মৃতীচারণ মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে পৌরসভা প্রাঙ্গণে এই সংবর্ধনা অনিষ্ঠান উপজেলার একশত ছয়জন (১০৬) জীবিত মুক্তিযোদ্ধাদের ব্যাপক ভাবে সংবর্ধনা জানালেন হরিণাকুণ্ডু পৌরসভার মেয়র মোঃ ফারুক হোসেন।
এসময় মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে লাল সবুজ ক্ষচিত পান্জাবী, টুপি,উন্নত মানের খাবার সহ এক প্যাকেট উপহার তুলে দেওয়া হয়।
উপজেলাতে এই প্রথম জীবিত মুক্তিযোদ্ধাদের এইভাবে সন্মাননা জানানো হলো।
সকালে প্রথমে আনুষ্ঠানিক ভাবে পতাকা উত্তোলন করেন ঝিনাইদহ এক আসনের জাতীয় সাংসদ ও ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই,ঝিনাইদহ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু,জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মকবুল হোসেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন, জেলা সাবেক ডিপুটি কমান্ডার রেজাউল ইসলাম গেন্দা,উপজেলা সাবেক কমান্ডার মহিউদ্দীন মাস্টার সহ স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তীতে পঞ্চাশ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা।
আনুষ্ঠানিক পতাকা উত্তোলন শেষে মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দের হাতদিয়ে একশত টিউবয়েল বিতরণ করা হয়।
হরিণাকুণ্ডু পৌরসভার মেয়র ফারুক হোসেন এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন
বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জাতীয় সংসদ সদস্য,সাবেক প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ
ঝিনাইদহ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল হাই,বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ
জেলার সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামীলূগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু, ঝিনাইদহ জেলার সাবেক মুক্তিযুদ্ধো কমান্ডার মকবুল হোসেন, হরিনাকুন্ডু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন, হরিনাকুণ্ডু থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম মোল্লা।
উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম- আহবায়ক রাফেদুল হক সুমন এর সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান বসির উদ্দীন,শরাফত দৌলা ঝন্টু, হরিণাকুণ্ডু প্রেস ক্লাবের সভাপতি এইচ মাহাবুব মিলু,পৌর প্যানেল মেয়র সিদ্দীকুর রহমান,সেচ্ছাসেবক লীগের উপজেলা আহবায়ক সালাউদ্দীন ফিরোজ,প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান এলবি লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাব্বুল হুসাইন,উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক,সাধারণ সম্পাদক জাফিরুল ইসলাম,উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক রুবেল রানা, পৌর ছাত্রলীগ নেতা পলাশ আহমেদ।
এ ঘটনায় সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মহিউদ্দিন মাস্টার, সাবেক জেলা ডেপুটি কমান্ডার রেজাউল ইসলাম গেন্দা, জামাল উদ্দীন সহ বীর মুক্তিযোদ্ধারা বলেন প্রতি বছর ১৬ ডিসেম্বর ও ২৬ মার্চে উপজেলা প্রশাসন, জাতীয় সাংসদ তাহজিব আলম সিদ্দিকী সমি, শাড়ী ও লুঙ্গী, ফুলের স্টিক সহ উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করলেও এভাবে শুধু আমাদেরকে ঘিরেই সকল আয়োজন আর কেউ করেনি। আমাদের সন্মানিত করায় পৌরসভার মেয়র সাহেবকে আবারও ধন্যবাদ জানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.