October 5, 2022

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় স্বাধীনতা দিবসে শহিদ মিনারে বিএনপির ফুলের তোড়া নিয়ে দু‘পক্ষের হাতাহাতি হয়েছে। জানা যায়, এ উপজেলায় দীর্ঘদিন যাবত বিএনপির দু‘গ্রুপকে মাঠে দখা যায়। বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাবে কোনো কর্মসূচি না দিলেও তারা আলাদা আলাদা পালন করেন। আবার মাঝে মাঝে একসাথেও কর্মসূচি পালন করেন।

শনিবার (২৬ মার্চ) জাতীয় কর্মসূচি হিসেবে ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ইন্দুরকানীর এমইউ মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শহিদ মিনারে আনন্দ র‍্যালি দিয়ে ফুলের তোড়া নিয়ে যাওয়ার সময় বিএনপির সাবেক সভাপতি আঃ লতিফ হাওলাদার এর কর্মীরা সাবেক সাধারন সম্পাদক ফায়জুল কবির তালুকদার এর কর্মীদের হাত থেকে ফুলের তোড়া নিয়ে আনন্দ র‍্যালিতে সামনে যাওয়াকে কেন্দ্র করে দু-পক্ষের বাকবিতন্ডা শুরু হয়। পরে একপর্যায়ে বাকবিতন্ড শুরু হলে হাতাহাতি পরিনত হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিএনপির নেতা জানান, ইন্দুরকানী (জিয়ানগর) উপজেলার ছয় বছর আগে কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে পিরোজপুরের দুই নেতাকে আহবায়ক, যুগ্ম আহবায়ক করে দেয়া হয়। ছয় বছর হলেও তারা কোনো কমিটি দিতে পারে নাই। সেই কারণে এ দু-গ্রুপের মধ্যে প্রায় এই রকম ঘটনা ঘটে।

সাবেক সাধারন সম্পাদক ফায়জুল কবির তালুকদার জানান, বিগত কর্মসূচি একসাথে পালন করি। তাদের আমরা দাওয়াত দিয়েছি। আজকের যে ঘটনা ঘটেছে তা তাদের পূর্ব পরিকল্পিত ছিল। আজকের কর্মসূচী পালন করার লক্ষে আনন্দ র‍্যালি দেওয়ার সময় তারা হঠাৎ আমাদের ফুলের তোড়া ভেঙে ফেলে এবং কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে।

সাবেক সভাপতি আঃ লতিফ হাওলাদার জানান, ফুলের তোড়া নিয়ে মিছিলের সামনে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রদল-যুবদলের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝি হয়। পরে আমরা একসাথে শহিদ মিনারে ফুল দিয়েছি।

কাফী/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.