স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড!

গাইবান্ধার সাঘাটায় গৃহবধূ পারভীন আক্তার হত্যা মামলায় স্বামী ছাইফুল ইসলাম ও প্রথম স্ত্রীর ভাই আব্দুল করিমকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (৩০ দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ফেরদৌস ওয়াহিদ এই রায় দেন।

মামলার বিবরণীতে জানা যায়, ২০১৫ সালে গৃহবধূ পারভীন আক্তারের সাথে আসামি ছাইফুলের বিবাহ হয়। পারভীন আক্তার ছিল তার দ্বিতীয় স্ত্রী। বিবাহের পর থেকেই তাদের পারিবারিক ও সাংসারিক কলহ লেগেই থাকত। এক সময় মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে যায় ছাইফুল। সেই সময় বাবার বাড়িতে অবস্থান করত পারভীন বেগম। জেল থেকে জামিনে বের হয়ে নিজ বাড়িতে স্ত্রী পারভীনকে নিয়ে যায় ছাইফুল। এরপর পারভীনের কোন খোঁজ খবর পাওয়া যায় না এমনকি মোবাইল নাস্বারটিও বন্ধ পাওয়া যায়। হঠাৎ একদিন সাঘাটা থানা থেকে পারভীনের বাবার বাড়িতে ফোন আসে সাঘাটা থানাধীন বসন্তেরপাড়া গ্রামে ছাইফুল ইসলামের প্রথম স্ত্রীর খালা কোহিনুর বেগমের বাড়ির পায়খানার সেফটি ট্যাংক থেকে পারভীন বেগমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এই ঘটনায় ২০১৭ সালে স্ত্রী পারভীনের বড় ভাই আজিজুল রহমান স্বামী ছাইফুলকে আসামি করে সাঘাটা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ছাইফুল আদালতে
স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন যে স্ত্রী পারভীনকে তিনি জবাই করে হত্যা করেছেন এবং এই হত্যার সাথে প্রথমপক্ষের স্ত্রীর খালাতো ভাই আব্দুল করিমও জড়িত ছিল। দীর্ঘ শুনানীর পর আদালত আজ এ রায় দেন।

সুমন/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.