সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কে পানি, ট্রাক্টর এখন তাদের ভরসা

বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক। যে কারণে সিলেটের সাথে জকিগঞ্জ- বিয়ানীবাজার- কানাইঘাট উপজেলার কয়েক লক্ষাধিক মানুষের যাতায়াতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বেশির ভাগ জায়গায় সড়কে পানি উঠায় যানবাহন চলাচল করতে পারছেনা। বিশেষ করে সিএনজি অটোরিকশাগুলো পানি দিয়ে যাতায়াত করছেনা। এজন্য বিকল্প হিসেবে এখন ট্রাক্টরই মানুষের যাতায়াতের একমাত্র ভরসা।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকেলে গোলাপগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরের চৌমুহনীতে দেখা যায়, ৩/৪ টি ট্রাক্টর দাঁড়িয়ে আছে। একটি ট্রাক্টরে মহিলা-পুরুষ সবাই উঠছেন। নিচে ট্রাক্টরে উঠার জন্য রাখা হয়েছে টোল। মানুষে ভরপুর হলে ট্রাক্টর ছেড়ে যাচ্ছে। এভাবে সব গুলো ট্রাক্টরে মানুষে যাতায়াত করছেন।

এভাবে গত ২/৩ দিন থেকে গাড়ির সংকট থাকায় পৌর শহরের চৌমুহনী থেকে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মানুষ ট্রাক্টরে যাতায়াত করছেন।

কাছে গিয়ে কথা হয় এক যুবকের সাথে। তার গন্তব্য বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাইয়ে। তিনি বলেন- ‘সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের বিভিন্ন জায়গায় সড়কে পানি উঠে গেছে। এ সড়ক দিয়ে গাড়ি কম চলাচল করছে৷ এজন্য গাড়ির সংকট দেখা দিয়েছে। যে কারণে কোন উপায় না দেখে ট্রাক্টরে যাতায়াত করছি।’

একজন মহিলা বলেন- ‘ছোট-ছোট গাড়ি চলতেছে না। আর সড়কে পানি থাকায় ছোট গাড়িতে চড়া অনেক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়। এজন্য ভাড়া বেশি দিয়েও ট্রাক্টরে যেতে হচ্ছে।’

সেলিম আহমদ নামে এক ট্রাক্টর চালক বলেন- ‘গত দুই দিন থেকে গোলাপগঞ্জ থেকে যাত্রী আনা-নেওয়া করছি। সড়কের বিভিন্ন জায়গায় পানি। এজন্য ঝুঁকি নিয়েও ধীরে ধীরে চলতে হচ্ছে।’

আরেক চালক বলেন- ‘এ সড়ক দিয়ে অন্যান্য গাড়ি খুবই কম চলতেছে। মানুষের যাতায়াতে অসুবিধা হচ্ছে। তাই মানুষ বাধ্য হয়েই আমাদের ট্রাক্টরে বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছেন।’

ফাহিম/বার্তাবাজার/জে আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.