October 1, 2022

সপরিবারে লন্ডনে গেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। যুক্তরাজ্যে হাউস অব কমন্সে ‘এনআরবি পুরস্কার’ গ্রহণের জন্য তিনি লন্ডন গেছেন।

শুক্রবার (২৫ মার্চ) সকাল ৮টা ২০ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তিনি যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন বলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্বাধীনতার ৫০ বছর সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আগামী ২৯ মার্চ দুপুরে হাউস অব কমন্সে সাবেক অর্থমন্ত্রী ও ইস্ট লন্ডনের নির্বাচিত জনপ্রিয় এমপি স্টিফান টিমসের ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এই পুরস্কার গ্রহণ করবেন।

আয়োজক সংগঠন লন্ডনভিত্তিক প্রবাসী পেশাজীবীদের আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘ভয়েস ফর গ্লোবাল বাংলাদেশিজ’।

ভ্রমণের সময় তার সফরসঙ্গী হিসেবে আছেন স্ত্রী শিরিন হক ও ছেলে বারিশ হাসান চৌধুরী। আগামী ১৬ এপ্রিল তিনি বাংলাদেশে ফিরে আসবেন। লন্ডনে থাকাকালীন সময়ে তিনি বাংলাদেশি প্রবাসীদের বিভিন্ন নাগরিক সমাবেশে ও আন্তর্জাতিক হেলথ সেমিনারে বক্তব্য দেবেন। তিনি দেশবাসীর কাছে তার ভ্রমণের সাফল্য ও সুস্বাস্থ্যতার জন্য দোয়া কামনা করেছেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে আগামী ২৮ মার্চ সারা দেশে হরতাল ডেকেছেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। কিন্তু হরতালের তিন দিন আগে সপরিবারে যুক্তরাজ্য গেছেন তিনি।

গত ১১ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে এসে ২৮ মার্চ সারা দেশে আধাবেলা হরতালের ডাক দেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর, গণস্বাস্থ্যের মিডিয়া কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ।

ভোজ্যতেল, চাল-ডাল, পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ২৮ মার্চ সব রাজনৈতিক দল ও সব জনগণকে শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল পালনের আহ্বান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে জাফরুল্লাহ বলেছিলেন, ওইদিন বাসার বাইরে বের হবেন না। বের হলেও হরতালে যোগ দেওয়ার জন্য বের হবেন। সবাই মিলে দলমত নির্বিশেষে যে যেভাবে পারেন হারতাল পালন করবেন।

কিন্তু হরতালের দিন দেশে থাকছেন না জাফরুল্লাহ। আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে তার দেশে ফেরার সম্ভাবনা নেই। যদিও হরতালের সমর্থনে তিনি গতকাল (বৃহস্পতিবার) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বি‌ক্ষোভ সমা‌বে‌শ করেছেন। পরে তার নেতৃত্বে ২৮ মার্চ হরতালের সমর্থনে ভুখা (ক্ষুধার্ত) মিছিলও হয়েছে।

বার্তাবাজার/জে আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.