সত্যিকারের বিরাটকে সবাই চেনে না: আনুশকা

২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর বিয়ে করেন বিরাট কোহালি ও আনুশকা শর্মা। চলতি বছর জানুয়ারি মাসের ১১ তারিখ তাদের সংসারে এসেছে মেয়ে ভামিকা। গতকাল বিবাহবার্ষিকীতে তারা দুজন দুজনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভালোবাসাময় পোস্ট করেন। শেয়ার করেন নিজেদের একাধিক ছবি।

বিবাহবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে আনুশকা লিখেছেন, “এই ভ্রান্ত আর মন গড়া ধারণার দুনিয়ায় বাঁচতে হলে ভীষণ সাহস দরকার। সেটা তোমার আছে। সবসময় আমার পাশে দাঁড়ানোর জন্য ধন্যবাদ। একটা বিয়ের বন্ধন তখনই সফল হয় যখন দু’জনই পরস্পরের কাছে সুরক্ষিত। আর তুমি সেই সবচেয়ে সুরক্ষিত মানুষ যাকে আমি চিনি। সত্যিকারের বিরাটকে সবাই চেনে না। যারা চিনেছে, তারা ভাগ্যবান। এভাবেই যেন একে অপরকে সঙ্গে নিয়ে বাঁচি।

স্বামীর প্রশংসা করে অভিনেত্রী আরও লেখেন, ‘সব সাফল্যের পিছনে যে মানুষটা রয়েছ, সেই আসল তুমি…. ভালোবাসা, সতত, স্বচ্ছতা, শ্রদ্ধা এইভাবেই আমাদের পথ দেখাক, আশা করি আমরা কোনওদিন আমাদের ভিতরের এই শিশুসুলভ কাণ্ডগুলো বন্ধ করব না, আমাদের ব্যাপরে এইটা আমার খুব পছন্দ’।

স্ত্রী আনুশকার উদ্দেশ্যে বিরাট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখেন, ‘আমায় সবদিক থেকে পূর্ণতা দিয়েছে তোমার ভালবাসা। বিগত চার বছর আমার বোকা বোকা জোকস ও আলসেমি সহ্য করেছো। আমি যেমন তেমন ভাবেই আমাকে গ্রহণ করে চার বছর ধরে ভালোবেসে আসছো। ভাবতে পারোনি কতটা বিরক্তিকর আমি। এই চার বছরে আমাদের উপর ঈশ্বরের সর্বশ্রেষ্ঠ আশীর্বাদ আমরা পেয়েছি। এই চার বছর আমি সবচেয়ে সৎ ও সাহসী নারীর সঙ্গে বিবাহিত। এমন একজন যে আমাকে সঠিক জিনিসের পাশে দাঁড়াতে অনুপ্রাণিত করেছে। এমনকি যখন পুরো বিশ্ব আপনার বিরুদ্ধে হতে পারে। চার বছর আমি তোমার সঙ্গে বিবাহিত। তুমি আমাকে প্রতিদিন সব দিক থেকে সম্পূর্ণ করো। এভাবেই বা তারও বেশি আজীবন ভালোবেসে যাব তোমায়’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.