সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

কয়েকদিন থেকে দেশজুড়ে টিসিবির পণ্য বিক্রয় কর্মসূচি চলছে। চুয়াডাঙ্গায় ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) খাদ্যপণ্যে সংকট দেখা দিয়েছে। কার্যক্রম শুরুর তিন দিনের মাথায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে টিসিবির পণ্য বিক্রি।

তবে খাদ্য পণ্যের কোনো সংকট নেই বলে দাবি করেছেন জেলা প্রশাসন। তারা বলছেন, খাদ্যপণ্য সংকট নয়, পণ্য রাখার জন্য পর্যাপ্ত গুদাম না থাকায় টিসিবির পণ্য বিক্রি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। জেলার ত্রাণের গুদাম ও খাদ্যগুদামে জায়গার সংকটের কারণে ওই সমস্যা দেখা দিয়েছে।

আগামী রোববার থেকে আবারও ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) কার্যক্রম শুরু হবে বলেও নিশ্চিত করেছ জেলা প্রশাসন।

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বেচা-বিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হলেও পণ্য সংকটের কারণে গত বুধবারই বন্ধ হয়ে যায় ইউনিয়ন পর্যায়ে টিসিবির খাদ্যপণ্য বিক্রির কার্যক্রম। গুদামে পণ্য না থাকায় সদর উপজেলার আলুকদিয়া, পদ্মবিলা, তিতুহদ ও বেগমপুর ইউনিয়নে বন্ধ রাখা হয় কার্যক্রম।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) জাকির হোসেন জানান, আমাদের পর্যাপ্ত গুদাম নেই। ত্রাণের গুদামে ৬০ টনের বেশি মাল রাখা সম্ভব নয়। তাই খাদ্যগুদামেও কিছু মালামাল রাখা হয়। সেখানেও পর্যাপ্ত জায়গা নেই। এ কারণে ক্রমান্বয়ে টিসিবির মালামাল পাঠাতে আমরা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। যেন ক্রমান্বয়ে আমরা বিতরণ করতে পারি। আগামী রোববার থেকে আবারও টিসিবির পণ্য বিক্রির কার্যক্রম শুরু হবে।

বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.