September 26, 2022

শৈলকুপা প্রতিনিধি ঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ১৪ দিন পর জখম হওয়া স্বপন নামে এক যুবলীগ কর্মীর মুত্যু হয়েছে।টানা ১৪ দিন ধরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে শুক্রবার সকাল ৫ টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ^বিদ্যালয় ও হাসপাতালে মারা যায়। নিহত স্বপন(৩৫) উপজেলার কবিরপুর গ্রামের মৃত আহাম্মদ আলীর ছেলে।
জানা যায়, গত ১৭ ই ডিসেম্বার শুক্রবার সন্ধ্যায় শৈলকুপা উপজেলা হাসপাতালের সামনে চায়ের দোকানে স্বপন (৩৫) ও রাব্বি (৩০) নামের দুই যুবলীগ কর্মী বসে ছিল। এমন সময় ১০/১৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল রামদা , চাইনিজ কুড়াল নিয়ে তাদের কে ধাওয়া করে। এসময় তারা পালানোর চেষ্টাকালে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মধ্যে তাদের দুজনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে ও সেইসাথে ২টা মটরসাইকেল ভাংচুর করে পালিয়ে যায় । শৈলকুপা হাসপাতলে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক স্বপন নামের যুবলীগ কর্মীকে প্রথমে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ ও অবস্থার অবনতি হলে পরে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ^বিদ্যালয় ও হাসপাতালে রেফার করা হয় আর সেখানেই ১৪ দিন পর তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
এব্যাপারে শৈলকুপা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি তার মৃত্যুর সংবাদ শুনেছি। অপরাধী যেই হোক কোন ছাড় পাবে না । বর্তমান এলাকার পরিস্থিতি শান্ত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.