শৈলকুপায় জোড়া খুনের মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মাইলমারী গ্রামে চাঞ্চল্যকর জোড়া খুনের মামলায় আদালত চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) দুপুরে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. শওকত হোসাইন এ রায় দেন। দন্ডপ্তরা হলেন হরিনাকুন্ডু উপজেলার জোড়াদহ গ্রামের আমিরুল ইসলাম, একই উপজেলার শ্রীফলতলা গ্রামের লিয়াকত আলী, ভায়না গ্রামের আলতাব মেম্বর ও বাহাদুরপুর গ্রামের ফারুক ওরফে বাদল। আসামেিদর মধ্যে ফারুক পলাতক হয়েছে। ঘাতকরা সবাই সন্ত্রাসী বলে এলঅকাবাসি সুত্রে জানা গেছে। মামলার বিবরণে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ২০১০ সালের ১৯ ফেব্রয়ারি শৈলকুপা উপজেলার মাইলমারী গ্রামের শরিফুল ইসলাম ও মাসুমকে রামচন্দ্রপুর মহাশ্মশান মরা গাং এলাকায় কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পরদিন নিহত একজনের স্ত্রী আফরোজা খাতুন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে শৈলকুপা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে ২০১১ সালের ৩০ নভেম্বর নয়জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় বৃহস্পতিবার মামলার চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় বাকি পাঁচ আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে। সরকারী পক্ষের আইনজীবী আব্দুল মালেক রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও বাদী আফরোজা খাতুন এই রায়ে হতাশ। তিনি বলেন সাক্ষ্য প্রমানে আসামীরা দোষি সাব্যস্ত হলেও তাদের ফাঁসি হওয়া উচিৎ ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.