শেরপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে সাংবাদিকের বাড়ি ও দোকান পুড়ে ছাই

বগুড়ার শেরপুর পৌর শহরের রামচন্দ্রপুর পাড়া এলাকায় (১৩ মার্চ) রোববার রাতে সাংবাদিক অশোক সরকারের বসতবাড়িতে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। এতে বাড়ি ও দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সময় নগদ টাকা, স্বর্নের গহনা, আসবাবপত্র সহ প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে।

জানা যায়, শেরপুর পৌর শহারের রামচন্দ্রপুরপাড়া এলাকার মৃত অজিত সরকারের ছেলে সাংবাদিক অশোক সরকার বাড়ির সাথে ওয়ান টু নাইন্টি নাইন প্লাস সুপার সপ নামের একটি দোকান দিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। নঁওগা জেলায় এক আত্মীয়ের বিয়ের দাওয়াত খাওয়ার জন্য বাড়ির সবাই সেখানে চলে যায়। ১৩ মার্চ রোববার রাত ৮ দিকে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে প্রথমে বাড়িতে আগুনের সূত্রপাত হয়।

পরে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন লেগে যায়। ওই দোকানে পারফিউম, বডিস স্পেসহ প্লাস্টিক জাতীয় সামগ্রী থাকার কারণে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে ভয়াবহতার রূপ নেয়। খবর পেয়ে শেরপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে চাইলে তাদের ট্যাংকের পানি ফুরিয়ে যায়। পরে আবারও পানি নিয়ে এসে প্রায় ২ ঘন্টার অভিযানে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট শেরপুর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর ওয়ার হাউজ ইন্সপেক্টর মো নাদির হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দ্রুত পৌছে যাই। কিন্তু আমাদের রির্জাভ পানি ফুরিয়ে গেলে পরবর্তীতে ২’শ গজ দুরে পুকুর থেকে পানি সংগ্রহের মাধ্যমে আগুন নিয়ন্ত্রন করা হয়। তবে বৈদ্যুতিক শট সার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয়েছে এবং এতে ৩০ লক্ষাধিক টাকা ক্ষতিসাধন হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ ঘটনায় শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ময়নুল ইসলাম, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম এবং শেরপুর পৌরসভার মেয়র জানে আলম খোকা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

রাশেদুল/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.