শুভেচ্ছা দূত হিসেবে নিজের যাত্রা ফিরে দেখলেন প্রিয়াঙ্কা

চলতি বছর ১১ ডিসেম্বর ৭৫ বছর পূর্ণ করলো ‘ইউনাইটেড নেশনস চিলড্রেন্স ফান্ড’ (ইউনিসেফ)। ইউনিসেফ এর সাবেক শুভেচ্ছা দূত হিসেবে নিজের এতদিনের সফরকে ফিরে দেখলেন হলিউড-বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

ইনস্টাগ্রামে ‘ইউনিসেফ’-এর সঙ্গে নিজের সফরের একটি ভিডিও কোলাজ পোস্ট করে অভিনেত্রী লেখেন, ‘বেশ অনেক বছর আগে আমি প্রতিজ্ঞা করেছিলাম গোটা বিশ্বের সেইসব শিশুদের সাধ্যমতো পাশে থাকব যাদের প্রয়োজন আছে এবং ২০০৬ সাল থেকে ইউনিসেফ-এর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি কৃতজ্ঞ। এই অভিজ্ঞতা আমাকে বিভিন্নভাবে সমৃদ্ধ করেছে – শিশুদের সঙ্গে দেখা করার জন্য ফিল্ড ভিসিট করা এবং তাদের গল্প বলা, সরকারের, প্রশাসনের সঙ্গে বিভিন্ন ধরণের আলোচনা করা, এতকিছু শেখা… ওদের সঙ্গে কাটানো সময় আমি গোটা জীবন উপভোগ করব।’
নিজের ইনস্টাগ্রাম একাউন্টে এই দিনের স্মরণে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া লেখেন, ‘ইউনিসেফ এমন একটি সংস্থা যা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় থেকে শিশুদের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছে এবং আজ তাদের ৭৫ বছর পূর্তি।’ ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে ভারত, বাংলাদেশ, ইথিওপিয়া, জর্দান, জিম্বাবোয়ে এবং একাধিক দেশের অসংখ্য নারী, শিশু ও উদ্বাস্তুদের সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পেয়েছেন অভিনেত্রী। ২০১৯ সালে তার সমাজসেবামূলক কাজের জন্য তিনি ‘ড্যানি কায়ে হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাওয়ার্ড’ পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.