শিম গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!

শিম গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা। রাতের আধারে কেটে ফেলেছে অসহায় কৃষকের ২৪ শতক জমির শিম গাছ।

নরসিংদীর রায়পুরায় জমি সংক্রান্ত্র বিরোধের জেরে রাতের আধাঁরে শিম ক্ষেত কেটে ফেলার এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার উত্তরবাখরনগর ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের মালিক রোকসানা বেগম জানান, আমি গত প্রায় দেড় বছর পূর্বে একই এলাকার আঃ লতিফ মিয়ার কাছ থেকে ২৪ শতাংশ জমি দেড় লাখ টাকার বিনিময়ে চাষাবাদের জন্য বন্ধক নেই। এতদিন ধরে নিয়মিত বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করে আসছি। সম্প্রতি সুমন মিয়াসহ আরো কয়েকজন উক্ত জমির মালিকানা দাবী করে আমাকে জমিতে চাষাবাদ না করার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে। বিষয়টি আমি আঃ লতিফ মিয়াকে অবগত করিলে তিনিই জমির প্রকৃত মালিক বলে জানান। এরই মধ্যে মঙ্গলবার সকালে জমিতে গিয়ে দেখা যায় ২৪ শতাংশ জমির সকল শিম গাছ ও সহযোগি ফসলের গাছগুলো কেটে ফেলা হয়েছে। তিনি আরো জানান, সুদি এনজিও থেকে টাকা উত্তোলন করে সবজি চাষ করেছিলাম এখন এনজিওর টাকা পরিশোধ করবো কি করে।

জমির মালিক আঃ লতিফ মিয়া বলেন, আমি ৪০ বছর ধরে জমি চাষাবাদ করে আসছি। পৈত্রিক ও ক্রয়সূত্রে জমির মালিক আমি। কিন্তু গত কয়েকমাস ধরে একই এলাকার সমুন মিয়াসহ কয়েকজন জমির মালিকানা দাবী করে আসছে। এ নিয়ে আমি আদালতে লিখিত অভিযোগ দাখিল করিলে আদালত ১৪৫ জারী করেন।

এ ব্যাপারে জমির মালিকানা দাবীদার সুমন মিয়া বলেন, তাদের শিম ক্ষেত কে বা কারা কেটেছে তা আমার জানা নেই।
এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ হাবিব বলেন, জমি নিয়ে দ্বন্ধ থাকতেই পারে। তাই বলে জমির ফসল কেটে ফেলা সত্যিই নিন্দনীয় কাজ। বিষয়টি নিয়ে আমরা বসবো।

রায়পুরা থানার এএসআই জোবায়ের বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

রেজাউল করিম/বার্তাবাজার/কা.হা

Leave a Reply

Your email address will not be published.