শশুড়ের বিরুদ্ধে পূত্রবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ

নাটোরের গুরুদাসপুরে নব বিবাহীত পূত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শশুড়ের বিরুদ্ধে। রোববার গভীর রাতে উপজেলার সাহাপুর কালীনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভুগী মেয়ের মা বাদি হয়ে গুরুদাসপুর থানায় অভিযুক্ত শশুড় শাহীন খন্দকারের নামে মামলা দায়ের করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, এক সপ্তাহ আগে সাহাপুর কালীনগর গ্রামের আকমিলা বেগমের ১৪ বছরের মেয়ে তার বাড়ির ভারাটিয়া শাহীন খন্দকারের ছেলে রিফাত খন্দকারের সাথে বাল্যবিয়ে দেন। অভিযুক্ত ব্যক্তি শাহীন খন্দকার ও তার ছেলে রিফাত খন্দকারের বাড়ি জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার বড়াল এলাকায়। দীর্ঘদিন যাবৎ সাহাপুর এলাকার একটি ভাটায় তারা কাজ করতো। ভাটায় কাজ করা অবস্থায় আকলিমার বাসায় ভাড়া থাকতেন। সেখানে বসবাস করা অবস্থায় তার ছেলে রিফাত খন্দকারের সাথে আকলিমার মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দুইজনের বয়স না হলেও আনুমানিক এক সপ্তাহ আগে তাদের বিয়ে হয়। রোববার (১৩ মার্চ) রাত আনুমানিক ১২টার দিকে রিফাতের বাবা শাহীন খন্দকার তার পূত্রবধুকে জোড়পুর্বক তার ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে।

ভুক্তভুগী মেয়ের স্বামী ও মা ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত শাহীন খন্দকারকে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল মতিন জানান, মামলা রজু হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতার করার জোড় তৎপরতা চলছে।

তানিম/বার্তাবাজার/কা.হা

Leave a Reply

Your email address will not be published.