সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় শশুরবাড়ী থেকে আরিফুল ইসলাম (২২) নামে এক যুবকের গলায় কাপড় পেচানো রহস্যজনক ভাবে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) সকালে উপজেলার স্বরূপকাঠি পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের ভূইয়াবাড়ীর শশুর ইউনুছ মিয়ার ঘর থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে পিরোজপুর মর্গে পাঠিয়েছে।

ইউনুছ মিয়া অভিযোগ করেন, জামাই আরিফ প্রায়ই নেশা করে তাদের বাড়ী আসত। বৃহস্পতিবার রাতে সে নেশা করে তাদের বাড়ীতে আসে। এসময় মেয়ের সাথে ঝগড়া করে ওইদিন রাতে সবার অগোচরে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ওই যুবকের মা শাহনাজ পারভিন বলেন, তার ছেলে কখনো নেশা করতো না। ছেলে আরিফ সম্পর্ক করে গেল ছয়মাস আগে ইউনুছের মেয়ে সাদিয়াকে বিয়ে করেছে। বিয়ের পর থেকে বেশিরভাগ সময় সাদিয়ার বাবার বাড়ী থাকত। বউয়ের খুশির জন্য ছেলে আরিফ সবকিছু করত। গত বৃহস্পতিবার সকালে আরিফ তাকে ফোন দিয়ে বলেছে সে বউ নিয়ে শুক্রবার বাড়ীতে আসবে। অথচ, শুক্রবার সকালে শুনি সে নাকি শশুরের ঘরে বসে গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তিনি বলেন তার ছেলে আত্মহত্যা করতে পারেনা। তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: হেদায়েততুল ইসলাম জানান, আপনি গিয়ে জানেন। আমি যতটুকু শুনেছি সে আত্মহত্যা করেছে।

নেছারাবাদ থানার সেকেন্ড অফিসার মো: হেমায়েত উদ্দীন জানান, শুক্রবার লাশ উদ্ধার করে পিরোজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাবেনা।

নাছরুল্লাহ/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.