October 6, 2022

বর্তমান যুগের ক্রিকেট যেন রিভিউ ছাড়া ভাবাই যায় না। এক ইনিংসে প্রতিটি দল সর্বোচ্চ ৩টি করে রিভিউ নিতে পারে। আবার ফল আবেদন করা দলের পক্ষে গেলে সেই সংখ্যাটা আরও বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে বেশি সুবিধা পায় মূলত ব্যাটাররা। তাদের রান করার সুযোগও বেড়ে যায়।

এটি নিয়েই যেন আক্ষেপ ঝড়লো পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতারের কন্ঠে। তার মতে, আগের যুগে যদি রিভিউ সিস্টেম থাকতো তাহলে ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকারের রান সংখ্যা এক লাখ হতো। বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটার টেন্ডুলকারের আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির সংখ্যা ১০০টি। এর বাইরে ৯০- এর ঘরে আউট হয়েছেন আরও অসংখ্যবার। কিন্তু তার সময়কার যুগে রিভিউ সিস্টেম ছিল না।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ভারতের সাবেক কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে এক আড্ডায় সেই প্রসঙ্গে কথা বলেছেন শোয়েব। রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেন, ‘এখন দুবার নতুন বল নেওয়ার সুযোগ আছে, নিয়ম আরও কঠিন বানিয়ে ফেলা হয়েছে। ব্যাটারদের অনেক বেশি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে, তিনবার রিভিউ নিতে পারছে তারা। আমাদের সময় এমন নিয়ম থাকলে শচীন এক লাখ রান করতো।’

ভারতের হয়ে টেস্টে ১৫৯২১, ওয়ানডেতে ১৮৪২৬ এবং টি-টোয়েন্টিতে ১০ রান করেছেন শচীন টেন্ডুলকার। সবমিলিয়ে তার সংখ্যা ৩৪৩৫৭।

Leave a Reply

Your email address will not be published.