রাশিয়ার আক্রমণে ইউক্রেনে নিহত দুই ফুটবলার

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন যেন থামছেই না। দেশটিতে রাশিয়ার সামরিক অভিযানে ইতিমধ্যেই অনেক মানুষ মৃত্যুর দিকে ডেলে পড়েছে। এমনি এক প্রণ গেল ঐ দেশের দুই কিংবদন্তী ফুটবলারের। নিহতরা হলেন ভিটালি স্যাপিলো (২২) ও দিমিত্রো মার্টিনেনকো (২৫)। তারা রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।

এদিকে স্যাপিলো নিজ দেশের ক্লাব কারপাতি লভিউয়ের যুব দলের হয়ে নিয়মিত খেলেছেন। সম্প্রতি ক্লাবের পক্ষ থেকে স্যাপিলোর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়। এফসি গোস্টোমেলের হয়ে নিয়মিত খেলা ফুটবলার মার্টিনেনকোর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে তার ক্লাব। তারা জানায় একটি হামলার সময় রাশিয়ার পাল্টা বোমা হামলায় তিনি মারা যান। ঘটনার পর শোক প্রকাশ করে ফিফপ্রো জানিয়েছে, আমাদের ভাবনা জুড়ে এখন ইউক্রেনীয় তরুণ ফুটবলাররা। যারা তাদের দেশের ডাকে সারা দিয়ে যুদ্ধে যোগ দিয়েছে। আমরা সেই সাথে স্যাপিলো ও মার্টিনেনকোর পরিবার, বন্ধু ও সতীর্থদের সমবেদনা জানায়। তারা দুজনেই শান্তিতে থাকুক।

এর আগে থেকেই আগে ফিফা রাশিয়াকে পতাকা, জাতীয় সংগীত ও হোম ভেন্যুর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও এবার পুরোপুরি ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ করেছে। ফলে চলতি বছর রাশিয়ার নারীরা ইউরোতে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। শুধু তাই নয়, মার্চে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে পুরুষরা খেলতে পারবে না পোল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচ। কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সূচি অনুযায়ী আগামী ২৪ মার্চ পোল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে খেলার কথা ছিল রাশিয়ার। ম্যাচটি রাশিয়া জিতলে সেখানেই ২৯ মার্চ সুইডেন অথবা চেক রিপাবলিকের মুখোমুখি হতো তারা।

অরদিকে আগে ইউক্রেনে হামলার পর শুরুতে রাশিয়ায় বাছাইয়ের ম্যাচ আয়োজনের বিপক্ষে একযোগে অবস্থান নেয় পোল্যান্ড, সুইডেন ও চেক রিপাবলিক। পরে আরও কঠোর অবস্থান নিয়ে তিন দেশের ফুটবল ফেডারেশন জানিয়ে দেয়, রাশিয়ার বিপক্ষে খেলবে না তারা। এমনকি সেটা নিরপেক্ষ ভেন্যুতেও নয়।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.