October 1, 2022

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি

রাত পোহালেই দীর্ঘ ১৮ বছর পর ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হতে যাচ্ছে। আগামীকাল ১৯শে মার্চ সম্মেলন সম্মেলন।
ঘিরে নেতা–কর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদ কারা পাচ্ছেন, তা নিয়ে চলছে গুঞ্জন। তবে অধিকাংশ নেতা–কর্মীই দলীয় কার্যক্রমে গতি ফিরিয়ে আনতে নতুন নেতৃত্ব তৈরি করার দাবি জানিয়েছেন।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা আওয়ামী লীগের এক সভায় মার্চে সম্মেলন করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। এ নির্দেশনা পেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ১৯শে মার্চ তারিখ নির্ধারণ করা হয়। সম্মেলন হওয়ার নির্দেশনা আসার পরই সরব হয়ে উঠেছেন কোটচাঁদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। এই কমিটির পদপ্রত্যাশীরা ইতিমধ্যেই প্রচার শুরু করে দিয়েছেন এবং দলের উচ্চপর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন।সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ কে পাচ্ছেন, তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনাকল্পনা। তবে দল ক্ষমতায় থাকায় নেতা হওয়ার তীব্র প্রতিযোগিতা হবে বলে ধারণা করছেন কর্মীরা।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, ২০০৪ সালের আগষ্ট মাসের প্রথম সপ্তাহের দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিল। দীর্ঘ ১৮ বছর আগের ওই সম্মেলনে কোটচাঁদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুন্নেচ্ছা মিকি সভাপতি ও শাহাজান আলী সাধারণ সম্পাদক হন। ৭১ সদস্যবিশিষ্ট সেই কমিটির কিছুজন মারা গেছেন। আবার অনেকে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। ফলে দলটিতে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে অনেকে দাবি করেছেন। তবে এই অচলাবস্থার মধ্যেও জাতীয় ও স্থানীয় সব কর্মসূচি পালন করে গেছেন বলে দাবি বর্তমান নেতাদের।

দলীয় নেতৃবৃন্দ জানান, দীর্ঘদিন পর সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করায় নেতা–কর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। নেতা হওয়ার জন্য অনেকে লবিংও শুরু করেছেন। দলের মধ্যে এটা থাকবে, তবে সম্মেলন হচ্ছে, এতেই তাঁরা খুশি। তারা আশা করছেন, সম্মেলনের মধ্য দিয়ে নতুন নেতৃত্ব আসুক এটাই তাদের দাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.