মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ইরাকের আধা স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস্তানের রাজধানী ইরবিলে অবস্থিত মার্কিন সামরিক ঘাঁটি, কনসুলেট ভবন এবং ইসরায়েলের গুপ্তচর সংস্থা মোসাদের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এক ডজন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। এই তথ্য জানিয়েছে কুর্দি কর্তৃপক্ষ।

ইরানি রেভল্যুশনারি গার্ডস এই হামলা চালিয়েছে বলে তারা দাবি করেছে। ইরানের রাষ্ট্রীয় মিডিয়া বলছে, ইরবিলে ইসরায়েলের ‘কৌশলগত কেন্দ্রগুলোর’ বিরুদ্ধে এই হামলা।

কুর্দির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মার্কিন দূতাবাসের নতুন ভবন লক্ষ্য করে এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে। এ হামলায় কেউ নিহত হয়নি। তবে, বেসামরিক একজন আহত হয়েছে।

হামলায় ব্যবহৃত ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ইরানে তৈরি করা হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন ইরাকের একজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা।

ইরানের রাষ্ট্রীয় মিডিয়াতে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ইসরায়েলের হামলার পুনরাবৃত্তি হলে কঠোর, নিষ্পত্তিমূলক ও ধ্বংসাত্মক জবাব দেওয়া হবে।’

এর আগে এক মার্কিন কর্মকর্তা এই হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করলেও সে সময় তিনি বিস্তারিত কিছু জানাননি।

এ হামলাকে ‘জঘন্য আক্রমণ’ উল্লেখ মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র বলেন, হামলায় কোনো হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

বার্তাবাজার/না. সা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.