মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় যুবককে তুলে নিয়ে মারধর

বান্দরবানের লামায় মাদক বিষয়ে প্রতিবাদ ও পুলিশকে তথ্য দেবে বলায় ফিল্মি স্টাইলে জাহেদ হোসেন (১৭) নামে এক কিশোরকে তুলে নিয়ে মারধর করেছে একটি কিশোর গ্যাং। সোমবার (১৪ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের উত্তর মালুম্যা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পরে রাত ১টা ১৫ মিনিটে পুলিশের সহায়তায় তাকে লামা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহত কিশোর জাহেদ হোসেন ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড নলবুনিয়া এলাকার নজির আহমদ এর ছেলে। জাহেদ হোসেনের বাবা নজির আহমদ বলেন, আমার ছেলে জাহেদ সাউন্ড সিস্টেমের অপারেটর হিসাবে কাজ করে। এলাকার আব্দুর রহিমের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ একটি কিশোর গ্রুপ রয়েছে। তারা অসামাজিক সন্ত্রাসী কার্যক্রম ও মাদক কারবারের সাথে জড়িত। এই কার্যক্রমের বিষয়ে গত কিছুদিন আগে প্রতিবাদ করে আমার ছেলে। সে জন্য ক্ষোভে সোমবার সন্ধ্যায় ইউনিয়নের উত্তর মালুম্যা এলাকার গোলাম কাদেরের ছেলে আব্দুর রহিম ও গোলাম শরীফের ছেলে বাবুল শরীফ উত্তর মালুম্যা এলাকায় গোলাম কাদেরের ফার্মে তুলে নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, সেখানে নিয়ে সন্ধ্যা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আব্দুর রহিমের নেতৃত্বে আমার সন্তানকে মারধর করে। ভয়ে কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে জাতীয় সহায়তা কেন্দ্র ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে, রাত ১১টায় লামা থানা পুলিশ গিয়ে আমার সন্তানকে উদ্ধার করে লামা হাসপাতালে ভর্তি করে। এই বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আমি বাদী হয়ে লামা থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমি বিচার দাবি করছি।

এই বিষয়ে জানতে আব্দুর রহিমের মোবাইলে ফোন করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। ইউপি মেম্বার মোহাম্মদ হোসেন মামুন বলেন, মঙ্গলবার সকালে বিষয়টি আমি জানতে পারি। এলাকায় কিছু ছেলে উচ্ছৃঙ্খল হয়ে গেছে। সাদ্দাম নামের ছেলে এই ঘটনায় জড়িত নয়, তাকে জড়ানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন লামা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. শাহীন বলেন, এই বিষয়ে আহত জাহেদের পিতা অভিযোগ করেছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মিজানুর/বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.