October 2, 2022

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের হোম ম্যাচে ভেনেজুয়েলাকে নিয়ে রীতিমত ছেলে-খেলা করেছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। নিজেদের জাল অক্ষত রেখে প্রতিপক্ষের জালে তিনবার বল পাঠিয়েছে তারা। দলে হয়ে গোল করেছেন লিও মেসি,নিকলাস গনজালেস ও আনহেল ডি মারিয়ারা।

ম্যাচের পরিসংখ্যান বলছে- ভেনেজুয়েলার গোলরক্ষক দারুণ কিছু সেভ না করলে ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। এদিন ৭৩ শতাংশ বল দখলে রেখে প্রতিপক্ষের গোলেমুখে ১৬টি শট নেয় লিওনেল স্ক্যালোনি শিষ্যরা। তার ৬টি ছিল লক্ষে। সেখান থেকে তিনবার গোল উৎসবে মেতেছে নীল-সাদা জার্সিধারীরা।
আর্জেন্টিনা শুরু থেকেই খেলেছে আক্রমণাত্মক ফুটবল। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় দলের প্রধান স্ট্রাইকার লাওতারো মার্টিনেজ ছিলেন না আজকের ম্যাচে। মেসির সঙ্গে এদিন আক্রমণভাগে নামেন হোয়াকিন কোররেয়া ও নিকলাস গনজালেস। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে রড্রিগো ডি পলের কাছ থেকে বল পেয়ে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন নিকলাস গনজালেস। এক গোলে এগিয়ে থেকেই প্রথমার্ধ শেষ করে আর্জেন্টিনা।

বিরতির পর ম্যাক অ্যালিস্টারকে উঠিয়ে আনহেল ডি মারিয়াকে মাঠে নামান কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি। সেই ডি মারিয়ার গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৭৯ মিনিটে ডি পলের উঁচু করে বাড়ানো বল থামাতে এগিয়ে আসেন ভেনেজুয়েলার গোলরক্ষক। বল তার মাথার ওপর দিয়ে চিপ করে জালে পাঠান ডি মারিয়া। ম্যাচজুড়ে আলো ছড়ানো মেসি আক্ষেপটা ঘোচান ম্যাচের ৮২ মিনিটে। ডি মারিয়ার কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। তিন গোলে এগিয়ে থেকে ম্যাচটা শেষ করে আর্জেন্টিনা।

এই জয়ের ফলে ১৬ ম্যাচে ১১ জয়ে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে কনমেবল অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের দ্বিতীয় অবস্থানে রইলো আর্জেন্টিনা। সমান ম্যাচে ১৩ জয় নিয়ে শীর্ষে আছে ব্রাজিল। চলতি মাসের ৩০ মার্চ নিজেদের শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরের বিপক্ষে খেলবেন লিওনেল মেসিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.