September 26, 2022

ভারতের কাছে ১১০ রানে হারলো বাংলাদেশের মেয়েরা। ২৩০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে নিগার সুলতানার দল ৪০.৩ ওভারে ১১৯ রানে সবকটি উইকেট হারায়।

২২৯ রান তাড়া করতে নেমে ৩৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে বাংলাদেশ। সালমা-লতার জুটিতে বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠার আভাস দিলেও শেষ পর্যন্ত আর লড়াই করতে পারেনি মেয়েরা। সর্বোচ্চ ৩২ রান করেন সালমা। লতা মণ্ডল ২৪, মুরশিদা খাতুন ১৯ ও রিতু মনি করেন ১৬ রান। এ ছাড়া কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের মুখ দেখেননি। জাহানারা আলম ১১ রানে অপরাজিত ছিলেন।

ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন স্নেহ রানা ২টি করে উইকেট নেন ঝুলন গোস্বামী ও পূজা ভস্ত্রকার।

এর আগে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৭৪ রান যোগ করেন ভারতের দুই ওপেনার। মারমুখী শেফালি ভার্মা জাহানারা আলমের এক ওভারেই হাঁকান তিন চার। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ যখন ধীরে ধীরে ফসকে যাচ্ছে তখনই বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান নাহিদা আক্তার।

তার শট বল পুল করতে গিয়ে ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগে ক্যাচ তুলে দেন স্মৃতি মান্দানা। ৩ চারে ৫১ বলে ৩০ রান করেন তিনি। পরের ওভারের তৃতীয় বলেই ভয়ঙ্কর হতে থাকা শেফালিকে ফেরান রিতু মণি।

এগিয়ে এসে তার বল খেলতে চেয়েছিলেন তিনি। ৪২ বলে ৪২ রান করেন শেফালি। এরপর মিতালি রাজকে একেবারেই শূন্য রানেই সাজঘরের পথ দেখান রিতু।

ইয়াশকিতা ভাটিয়ার সঙ্গে এরপর ইনিংস মেরামতের কাজ শুরু করেছিলেন হারমানপ্রিত কার। কিন্তু তাকে দুর্দান্তভাবে রান আউট করেন ফারজানা হক। ৩৩ বলে ১৪ রান করেন তিনি। তার সঙ্গী ভাটিয়া অবশ্য তুলে নেন ফিফটি।

৮০ বলে ৫০ রান করা এই ব্যাটারকেও ফেরান রিতু। নাহিদা আক্তারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। মাঝে ঝিমিয়ে পড়া ভারতের ইনিংসকে শেষদিকে আবারও জাগিয়ে তুলেন পূজা বস্ত্রাকার ও স্নেহা রানা।
২৩ বলে ২৭ রান করে শেষ ওভারে জাহানারা আলমের বলে স্নেহা সাজঘরে ফেরত গেলেও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন পূজা। ২ চারে ৩৩ বলে ৩০ রান আসে তার ব্যাট থেকে। বাংলাদেশের পক্ষে ১০ ওভার বল করে ৩৭ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন পূজা। এছাড়া নাহিদা ২ ও জাহানারা নেন একটি উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published.