বান্দরবানে ধর্ষণের পর নারীকে কুপিয়ে হত্যা

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে ধর্ষণের পর চুইরা ম‍্যা মারমা (৩৮) নামের এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) রাতে উপজেলার নোয়াপতং ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মহিলা পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তিনি ওই এলাকার জুম চাষী থুইচা প্রু মারমার স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের মত চুইরা ম‍্যা মারমা সকালে জুমে কাজ করতে যায়। সন্ধ্যার পরও বাড়িতে ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে জুম ঘরের পাশে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া যায়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পাশ্ববর্তী বটতলী পাড়া এলাকার কয়েকজন লোক প্রায় ১মাস ধরে অংসিং মারমার বাগানে গাছ কাটার কাজ করত। ঐ বাগানের পাশে ছিল চুইরা ম‍্যা মারমার জুম ঘর। গাছ কাটার শ্রমিকরা চুইরা ম‍্যার জুম ঘরে থাকত। ধারণা করা হচ্ছে অংসিং মারমার বাগানে কাজ হরতে আসা শ্রমিকরা চুইরা ম‍্যা মারমাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে পালিয়ে যায়।

রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মান্নান জানান, চুইরা ম‍্যা মারমার লাশ উদ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কে বা কারা কি কারণে তাকে হত্যা করেছে তা পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

মিজানুর/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.