ফরিদপুরের বই মেলায় তরুণ লেখক পারভেজ চোকদারের ‘নস্টালজিক’

‘আট আনায় কেনা জীবনের আলো’ শিরোনামে ফরিদপুরে চলছে ১০ দিনের অমর একুশে বই মেলা। বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে দেশজুড়ে জারি থাকা বিধিনিষেধের কারণে জনজীবনে যে স্তবিরতা ছিলো, এ বই মেলা শুরু হওয়ায় তা (স্তবিরতা) ছাপিয়ে যথেষ্ট আগ্রহ ও উন্মাদনা সৃষ্টি হয়েছে দর্শনার্থীদের মধ্যে। আর তাই মেলা শুরুর দিন থেকেই ক্রেতা দর্শনার্থীদের পদচারনায় মুখরিত মেলা প্রাঙ্গণ। হরেক রকমের বইয়ের মাঝে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বইগুলো নজর কাড়তে সক্ষম হয়েছে দর্শনার্থীদের। রয়েছে নানা ধরণের নবীণ প্রবীণ লেখকদের বইও।

প্রেম, দ্রোহ আর তরুণ মনের আবেগে মিশ্রিত ৩৩টি কবিতার সমন্বয়ে এবারের অমর একুশের গ্রন্থমেলায় স্থান নেয়া তরুণ প্রজন্মের লেখক পারভেজ চোকদারের একক কাব্যগ্রন্থ ‘নস্টালজিক’ স্থান পেয়েছে ফরিদপুরের এ বইমেলায়। ১৫ নম্বর এনজিও সমুহের স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বইটি। উদীয়মান, তরুন এ কবির বইটি সাগরিকা প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত হয়েছে।

বইটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সাংবাদিক মহসিন উল হাকিম বলেন, ‘তরুণরা যে এখন লেখালেখিতে আগ্রহী হচ্ছে বিষয়টি চমৎকার। পারভেজ মানুষ হিসেবে সহজ-সরল এবং প্রাণবন্ত। তার কবিতার মধ্য দিয়ে একজন তরুণের প্রেম-ভালোবাসাকে ঘিরে মনের আবেগ-অনুভূতি উঠে এসেছে। প্রেম ভালবাসা এবং সমাজিকতাকে প্রধান্য দিয়ে লেখা কবিতার বইটিতে নতুনত্বের ছোঁয়া রয়েছে।’

নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে পারভেজ চোকদার বলেন, ‘নস্টালজিক আমার প্রথম কাব্যগ্রন্থ। আশা করছি সকল শ্রেণির পাঠকের মনের খোরাক মেটাবে আমার কবিতাগুলো। প্রচলিত ধারার বাইরে লেখা কবিতাগুলো সকলের ভালো লাগবে বলে আশা করছি।’

পারভেজ চোকদারের জন্ম ১৯৯৯ সালে ফরিদপুরের ভাঙ্গার আলেখারকান্দা গ্রামে। তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। পারভেজ চোকদার ‘মালতী’ টেলিফিল্মের মধ্যে দিয়ে মিডিয়া জগতে প্রবেশ। তার চলচ্চিত্রের ওপর প্রবল আগ্রহ থাকায় তিনি ডিরেক্টর সুমন ধরের সাথে ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর হিসেবে একাধিক ওয়েবফিল্মে কাজ করেন। তিনি একজন ডিজিটাল কন্টেন্ট ক্রিয়েটর এবং ইউটিউবার। তিনি ডিজিটাল কন্টেন্ট ক্রিয়েটারের জন্য ২০১৭ সালে গুগল থেকে ‘সিলভার প্লে-বাটন’ পুরস্কার পান।

রাকিবুল/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.