সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

একটি দেশের প্রেসিডেন্ট ভবনের পাশেই উন্মুক্ত স্থানে গাঁজা চাষ হচ্ছে। ভাবতেই কেমন অবাক লাগছে। কিন্তু এমন অবাক করা ঘটনাই ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট ভবনের পার্শ্ববর্তী একটি উন্মুক্ত স্থানে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির প্রেসিডেন্ট ভবনের পার্শ্ববর্তী একটি উন্মুক্ত স্থান থেকে বিপুল পরিমাণ গাঁজার গাছ উপড়ে ফেলেছে পুলিশ। অভিযানে গাঁজা চাষে জড়িত আদিবাসী সম্প্রদায় ‘খোইসান’–এর নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদিবাসী গোষ্ঠীটির কেউ কেউ ৩ বছর ধরে অস্থায়ী শিবির তৈরি করে সেখানে বসবাস করছিলেন।

আদিবাসীদের নেতা নিজেকে ‘কিং খোইসান’ বলে দাবি করেন। পুলিশ গাঁজা গাছগুলো উপড়ে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি গাছগুলো আঁকড়ে ধরার চেষ্টা করেন। এ সময় তিনি বলতে থাকেন, ‘আমরা এখানে শান্তিপূর্ণভাবে এসেছি, এগুলো নিতে দেবো না।’ এরপর ‘কিং খোইসান’–কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এক বিবৃতিতে পুলিশ জানায়, গাঁজা নিয়ে কাজ করার জন্য ‘কিং খোইসান’ এবং তার কয়েকজন সহযোগীকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে অবৈধ গাঁজার চাষাবাদ এবং জনসমক্ষে মাস্ক না পরার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
২০১৮ সাল থেকে মাতৃভাষার স্বীকৃতির দাবিতে আন্দোলন করে যাচ্ছে ‘খোইসান’ আদিবাসী সম্প্রদায়ের লোকজন। এরপর প্রিটোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ভবনের কাছেই একটি খোলা জায়গায় তারা শিবির তৈরি করে। যার পাশেই অবস্থিত দক্ষিণ আফ্রিকার অবিসংবাদিত নেতা নেলসন ম্যান্ডেলার একটি বড় ভাস্কর্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.