পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীর ওড়না পেঁচিয়ে স্বামীর আত্মহত্যা

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ঘাটান্দী গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে স্বামী রফিকুল ইসলাম (৪৫) নামে আত্মহত্যা করেছে এক অটোভ্যান চালক। গেল রোববার (১৩ মার্চ) রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। আজ সোমবার (১৪ মার্চ) সকালে পুলিশ রফিকুলের মরদেহ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রফিকুলের স্ত্রী রাজিয়া খাতুন বাদী হয়ে ভূঞাপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন। রফিকুল ইসলাম সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোড়াচরা গ্রামের ইনছাব আলীর ছেলে। তার ১২ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতে ভাত খাওয়ার সময় স্ত্রী রাজিয়া খাতুনের সঙ্গে রফিকুলের কথাকাটি হয়। খাওয়া শেষ না করে পাশের রুমে গিয়ে শুয়ে পড়ে সে। এরপর মশার কয়েলের জন্য ভূঞাপুর বাসস্ট্যান্ডে এসে কয়েল কিনে ফের শুয়ে পড়ে। রাত সাড়ে ১১টার দিকে শব্দ শুনে ঘুম ভাঙে স্ত্রী রাজিয়ার। পরে দরজা ধাক্কা দিলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। বেড়ার ছিদ্র দিয়ে স্ত্রী দেখেন তার স্বামী ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলে রয়েছেন। পরে তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে থানা পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। রফিকুলের ছোট বোন শিরিনা খাতুন জানিয়েছনে, তার ভাই ভূঞাপুর পৌর এলাকার ঘাটান্দীতে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন ও ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান চালাতো। রাতে জানতে পারি তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

এ বিষয়ে ভূঞাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে গতকাল রোববার রাতেই মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে সোমবার সকালে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় রফিকুলের স্ত্রী রাজিয়া একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.