‘নেপাল দখল করছে চীন’, প্রতিবাদে হাজারো বিক্ষোভকারী

চীনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কারণে বিক্ষোভে নেমেছেন নেপালের জনগণ। নেপালের জনগণের বিক্ষোভের কারণের মধ্যে একটি হচ্ছে দেশটিতে বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই) প্রকল্প। দেশটির নাগরিকদের ধারণা এই প্রকল্পের মাধ্যমে চীন নেপালের জমি দখল করে নিচ্ছে। কানাডা ভিত্তিক থিঙ্ক ট্যাংক এসব মন্তব্য করেছে।

নেপালের মিডিয়ার বরাত দিয়ে ইন্টারন্যাশনাল ফোরাম ফর রাইটস অ্যান্ড সিকিউরিটি (আইএফএফআরএএস) জানিয়েছে, দেশটির হামলা, গোর্খা, দারচুলা, দোলাখা এবং সিন্ধুপালচোক জেলায় এই ধরনের সীমালঙ্ঘন করেছে চীন।

এ নিয়ে সীমান্তের ওপর জরিপ করতে নেপাল সরকার একটি কমিটি গঠন করেছে। ওই কমিটি দেশটির সীমান্তের ভেতরে তারের বেড়া ও ‘ফিজিক্যাল স্ট্রাকচার’ খুঁজে পেয়েছে।

ওই থিঙ্ক ট্যাংক আরও জানিয়েছে, হামলা জেলায় সীমান্তের এক কিলোমিটার ভেতরে ছিল চীনের দখলদারিত্ব।

আইএফএফআরএএস- এর মতে, বিআরআই প্রকল্পের ঋণ গ্রহীতা দেশগুলো ঋণের ফাঁদে পড়ে যাওয়ার রিপোর্টের ফলে নেপালের মানুষ তাদের দেশের প্রকল্প নিয়ে উদ্বিগ্ন। এ নিয়ে দেশটির জনগণ তাদের রাজনৈতিক নেতাদেরও বিশ্বাস করতে পারছেন না। তারা শ্রীলঙ্কা, কেনিয়ার উদাহরণ দিচ্ছেন।

আইএফএফআরএএস জানিয়েছে বিআরআই প্রকল্পের বিরুদ্ধে পাঁচ হাজারের বেশি বিক্ষোভকারী বিক্ষোভ জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.