নামাজরত অবস্থায় মারা গেলেন শিক্ষিকা

মৃত্যু অবধারিত। সবাইকেই একদিন মৃত্যুবরণ হবে। তবে, সেই মৃত্যুটা যেনো হয় সুন্দর সেটাই কামনা করে সকলে। মুসলিম ধর্মে নামাজরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করাকে অনেকটা সৌভাগ্যের মৃত্যুই বলা হয়। আর এমনটাই হয়েছে নোয়াখালীর সেনবাগ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষিকা ইসমত আরা কাকলির (৫০)। নামাজ পড়া অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

গত সোমবার দুপুর ২টা ২০মিনিটের দিকে বিদ্যালয়ে নামাজ পড়া অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত শিক্ষিকা কাকলি সেনবাগ পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের অর্জুনতলা গ্রামের এমদাদুল হক মিয়া বাড়ির মেজবাহ উদ্দিন টফির স্ত্রী। তার আকস্মিক মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সহকর্মী, ছাত্রছাত্রীসহ সকল মহলে।

মৃত্যুকালে স্বামী ও একটি সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন তিনি। ওই রাতেই সেনবাগ পৌরসভার অর্জুনতলা গ্রামস্থ বাড়িতে জানাজা শেষে লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এ বিষয়ে সেনবাগ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জিয়াউর রহমান জানান, সোমবার দুপুরে বিদ্যালয়ের বিরতির সময় শিক্ষিকা ইসমত আরা কাকলি বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে নামাজ পড়া শুরু করেন। এক পর্যায়ে তিনি নামাজের বৈঠক থেকে ওঠার সময় নামাজের বিছানায় পড়ে যান।

তিনি বলেন, এ সময় বিদ্যালয়ের সহকর্মীরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে সেনবাগ উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বার্তাবাজার /না. সা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.