সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২২

নাটোরের লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের রাধাকান্তপুর হাকিমপীরের আস্তানার একটি গম ক্ষেত থেকে প্রিন্টের শাড়ি দিয়ে মোড়ানো এক (ছেলে) নবজাতক শিশুকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। শিশুটি বর্তমানে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছে।

শুক্রবার (২৫ মার্চ) সকাল ৬টার দিকে দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের রাধাকান্তপুর হাকিমপীরের আস্তানার পূর্র্ব পাশের একটি গম ক্ষেত থেকে বাবুল হোসেন নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি তাকে উদ্ধার করে। লালপুর থানার ওসি মনোয়ারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, ‘সকাল ৬টার দিকে দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের রামপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে বাবুল হোসেন হাঁটার জন্য বের হলে হাকিমপীরের আস্তানার পূর্ব পাশের একটি গম ক্ষেতের মধ্যে প্রিন্টের শাড়ি দিয়ে মোড়ানো এক (ছেলে) নবজাতক শিশুকে জীবিত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে নবজাতক শিশু টিকে তিনি শিশুটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসলে পরিবারের লোকজন শিশুকে লালপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। ধারণা করা হচ্ছে, কে বা কাহারা শিশুটিকে গম ক্ষেতে ফেলে রেখে গেছেন।

লালপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সহকারী সার্জন ডাঃ মো. খোরশেদ আলম রানা জানায়, ‘সকাল ৯টার দিকে দুড়দুড়িয়া এলাকায় গমের ক্ষেতে থেকে পাওয়া একটি নবজাতক হাসপাতালে আনে স্থানীরা। আমার শিশুটিকে পরীক্ষা করেছি সে এখন সুস্থ ও সুন্দর আছে। আমরা তাকে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে রেখেছি।’

আশিকুর/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.