October 5, 2022

পারিবারিক জটিলতায় মধ্যেও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের পর পারিবারিক কারণে দেশে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাতে তিনি ঢাকা পৌঁছেন।

পরিবারের সদস্যরা অসুস্থ হয়ে পড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডের পরই আলোচনা শুরু হয়েছিল সাকিব বাকি ম্যাচ খেলবেন নাকি দেশে ফিরে যাবেন।তবে শেষমেশ চূড়ান্ত হয় সিরিজ শেষ করেই দেশে ফিরবেন তিনি। পরিবারের মায়া ত্যাগ করে সাকিব শেষ পর্যন্ত মাঠে নামেন। সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে তার ব্যাট থেকে আসে জয়সূচক বাউন্ডারিটি। ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের পর দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হন তিনি।

জানা গেছে, সাকিব আল হাসানের মা শিরিন আক্তার অসুস্থতার কারণে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন।একই সঙ্গে তার একমাত্র ছেলে আইজাহ আল হাসান ও ছোট মেয়ে ইরাম হাসান নিউমোনিয়াতে আক্রান্ত। তারাও ভর্তি দাদির সঙ্গে। অন্যদিকে বড় মেয়ে আলাইনা হাসান অব্রি ঠাণ্ডা-জ্বরে ভুগছে। এ ছাড়া, সাকিবের শ্বাশুড়িও ক্যানসারে আক্রান্ত। তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সাকিব পারিবারিক পরিস্থিতি বুঝে আবার দক্ষিণ আফ্রিকায় যেতে পারেন। সে ক্ষেত্রে ৩১ মার্চ শুরু হতে যাওয়া দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে তাকে না পাওয়া গেলেও তিনি দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে পারেন। ৮ এপ্রিল দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগে সেখানে হাজির হতে পারেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার।

এ বিষয়ে বিসিবি পরিচালক ও বোর্ডের মিডিয়া কমিটির প্রধান তানভীর আহমেদ দক্ষিণ আফ্রিকায় সাংবাদিকদের বলেন, দ্বিতীয় টেস্টে সাকিবকে পাওয়ার আশা কিছুটা আছে।

তিনি বলেন, আপনারা সবাই জানেন, এটা মেডিকেল কন্ডিশন। কেউ আগে থেকে কিছু বলতে পারছে না। যদি সবকিছু ঠিক থাকে, সাকিব বলেছে সে ফিরে এসে দলের সঙ্গে যোগ দেবে। যদি সম্ভব হয় তার পক্ষে, তাহলে সে যোগ দেবে (প্রথম টেস্টে)। তারপরও যদি না হয়, তাহলে দ্বিতীয় টেস্টের জন্য চেষ্টা করবে।

তিনি আরো বলেন, আমি যে বার্তাটা দিতে পারি, সাকিব খুব চেষ্টা করছে টেস্ট সিরিজ খেলার। সে খেলতে চায়। আমরা (ওয়ানডে) সিরিজ জয় করলাম তাকে নিয়ে। টেস্টেও আমরা চাচ্ছি জিততে। এ জন্য সাকিব ফিরে এসে খেলতে আগ্রহী।

বার্তাবাজার/জে আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.