থানার ভেতরের গাছ খাওয়ায় ছাগল আটক

থানার ভেতরে লাগানো গাছের চারা লাগানো গাছ খেয়ে ফেলে একটি ছাগল। সে কারণে ছাগলটিকে আটক করেছে পুলিশ। অনেক চেষ্টা করেও থানা থেকে ছাগলটি ছাড়াতে না পেরে স্থানীয় সংসদ সদস্যের (এমপি) শরণাপন্ন হয় ছাগলের মালিক। সংসদ সদস্য থানায় কল দেয়ার পরও ছাগলটি ছাড়েনি পুলিশ। হবিগঞ্জের বাহুবলে ঘটেছে ঘটনাটি।

বাহুবল সদর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ফারুক আহমেদের একটি রামছাগল মঙ্গলবার (২ আগস্ট) বাহুবল মডেল থানায় লাগানো কয়েকটি গাছের চারা খেয়ে ফেলে। তখনই ছাগলটি আটক করে পুলিশ। পরে রাখা হয় খোঁয়াড়ে। কেউ ছাড়িয়ে না নেয়ায় শনিবার (৬ আগস্ট) বিকেল পর্যন্ত ছাগলটি খোয়াড়ে আটক ছিল। ইউপি সদস্য ফারুক মিয়া জানান, মঙ্গলবার তার ছাগলটি থানায় আটক করা হয়। পরে স্থানীয় বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে থানায় যোগাযোগ করা হলেও ছাগলটি ছাড়া হয়নি।

বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদের শরণাপন্ন হন তিনি। এ সময় সংসদ সদস্য থানার ওসিকে মুঠোফোনে কল দেয়ার পরও থানা থেকে তার ছাগল ছাড়া হয়নি।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রকিবুল ইসলাম খান বলেন, ইউপি সদস্যের ছাগলটি থানার ভেতরের বনায়ন নষ্ট করায় এটিকে আটক করে খোঁয়াড়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সংসদ সদস্য আমাকে কল দিয়েছিলেন। পরে বিস্তারিত জেনে তিনি যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেছেন।

শনিবার বিকেল পর্যন্ত ছাগলটি ছাড়াতে এর মালিক কোন যোগাযোগ করেনি। তিনি বলেন, একটি কুচক্রী মহল বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে সংসদ সদস্যের মানসম্মান ক্ষুন্ন‌‌ করার অপচেষ্টা করছে।

বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.