তবে কি হত্যার শিকার হয়েছেন শেন ওয়ার্ন!

হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগস্পিনার শেন ওয়ার্ন এমনই ধারনা করা হচ্ছে। তবে, মৃত্যুর পর এক দিনের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত মৃত্যুর যথার্থ কারণ নিশ্চিত হতে পারেনি থাই পুলিশ।

এরই মধ্যে রহস্যের জট পাকতে শুরু করেছে। ওয়ার্নের রুমে ভালো পরিমাণ রক্ত দেখতে পেয়েছে বলে জানিয়েছে থাইল্যান্ডের পুলিশ। তবে, সিপিআর দেওয়ার সময় কাশি দিতে গিয়ে ওয়ার্নের মুখ দিয়ে পানির মতো শ্লাষ্মার সাথে রক্ত বের হতে পারে বলেও ধারনা তাদের।

ফলে এখন মৃত্যুর আসল কারন জানতে করা হবে ময়নাতদন্ত। এরপরই ওয়ার্নের মৃতদেহ অস্ট্রেলিয়ায় দ্রুতই পাঠানোর ব্যবস্থা করবে জানয়েছে থাই পুলিশ।

কোহ সামুইয়ের স্থানীয় পুলিশ প্রধান ইউত্থানা সিরিসোমবাত বলেছেন, ‘যদিও হার্ট অ্যাটাকের কথা বলা হচ্ছে, তবে আমি এখনও নিশ্চিত নয়। তার মৃত্যুর কারন নির্ভর করছে চিকিৎসকদের মতামতের ওপর।’

অস্ট্রেলিয়ার স্কাইনিউজে দেওয়া এক বক্তব্যে সেখানকার রাজ্যের পুলিশ কমান্ডার সাতিতি পোপিনিত বলেন, ‘আমরা ওয়ার্নের রুমে ভালো পরিমাণ রক্ত দেখতে পেয়েছি। তবে, এখানে অন্যকিছু সন্দেহের বিষয় নেই। সম্ভবত, সিপিআর দেওয়ার সময় কাশি দিতে গিয়ে ওয়ার্নের মুখ দিয়ে পানির মতো শ্লাষ্মার সাথে রক্ত বের হতে পারে।’

থাইল্যান্ডের অস্ট্রেলিয়ান প্রতিনিধি অলিভিয়া লেমিং এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, ওয়ার্নের অ্যাজমা সমস্যা ছিল এবং বুকের ব্যথার কারণে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন।’

বার্তাবাজর/ না. সা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.