October 3, 2022

আকিকার অনুষ্ঠানে টাকা চাওয়ায় চুমকি (২৬) নামের এক হিজড়াকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় শুক্রবার (১৮ মার্চ) দুপুর পৌনে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উপজেলার কাদরা ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের নিজ সেনবাগ গ্রাম থেকে ২নারীসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ। এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার নিজ সেনবাগ গ্রামের রাজ্জাক পুলিশের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক দিন আগে উপজেলার নিজ সেনবাগ গ্রামের রাজ্জাক পুলিশের বাড়ির জহিরুল হক নয়নদের ঘরে একটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। পারিবারিক ভাবে আগামী রোববার ওই শিশুর আকিকার অনুষ্ঠানের আয়োজন করার কথা ছিল। এমন খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে রাজ্জাক পুলিশের বাড়ির জহিরুল হক নয়ন ঘরে আকিকার অনুষ্ঠানের টাকা চাইতে যায় ২ হিজড়া।

এ সময় নয়নের পরিবার থেকে প্রথমে দুই হিজড়াকে ২শত টাকা দিলেও তারা আরো টাকা দাবি করে। এরপর বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে নয়নদের পরিবারের সদস্যরা হিজড়া চুমকিকে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী হিজড়া চুমকি।

তবে অভিযুক্ত বিবি রহিমা জানান, তাদের কাছে ৫হাজার টাকা দাবী করে হিজড়ারা। এতো টাকা দিতে তারা অপারগতা প্রকাশ করলে ভয় দেখানোর জন্য হিজরা চুমকি নিজেই নিজের শরীরের আগুন ধরিয়ে দেয়।

কাদরা ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের (ইউপি সদস্য) মেম্বার আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যান। অভিযুক্ত নয়নের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, নয়নের পরিবারের সদস্যদের দাবি হিজড়া চুমকি তাদের চুলায় আগুন ধরিয়ে দিয়ে ওই আগুন তাঁর গায়ে দেয়।

এ বিষয়ে সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে জিজ্ঞাসাবাদের তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বার্তাবাজার/না. সা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.