September 28, 2022

ঝিনাইদহের চোখ-

শিশু সন্তানসহ স্ত্রীকে নিয়ে জাহিদুল ইসলাম হাসপাতালে এসেছিলেন করোনার টিকা দিতে। হাসপাতালে প্রবেশের সময় কর্মচারীর মোটরসাইকেলে হালকা ধাক্কা লাগে। এরপর স্ত্রীর সামনেই ইজিবাইক চালকে মারধর শুরু করেন হাসপাতালের কর্মচারী সাইফুল। শুধু মারধর করেই ক্ষ্যান্ত হননি। জীবিকার একমাত্র অবলম্বন ইজিবাইকটিও ভাংচুর করতে দ্বিধাবোধ করেননি। বুধবার দুপুরে এমনই ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

মারধরের শিকার ইজিবাইক চালক জাহিদুল ইসলাম উপজেলার বনখিদ্দা গ্রামের মৃত আনসার আলীর ছেলে। এ ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন জাহিদুল ইসলাম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার দুপুরের দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেটে একটি ইজিবাইকের সাথে হাসপাতালের পোর্টার সাইফুল ইসলামের মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এ সময় প্রচন্ড ভীড় ছিল। এরপর একটু বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। এরপর সাইফুল ইজিবাইক চালক তার স্ত্রী ও সন্তানের সামনে শার্টের কলার ধরে তাকে মারধর করে এবং পাশ থেকে একটি লাঠি নিয়ে ইজিবাইক ভাংচুর করে। এ সময় ইজিবাইক চালক নিরুপায় হয়ে হাউমাউ করে কাঁদতে থাকে।

ইজিবাইক চালক জাহিদুল ইসলাম জানান, বুধবার দুপুরের দিকে ৬ মাসের শিশু সন্তানসহ স্ত্রীকে নিয়ে করোনার টিকা নিতে কালীগঞ্জ হাসপাতালে প্রবেশের সময় গেটে একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে হালকা ধাক্কা লাগে। এরপর মোটরসাইকেলে থাকা সাইফুল তাকে বেধড়ক মারপিট করেন। এরপর লাঠি নিয়ে ইজিবাইক ভাংচুর করে। এ সময় সন্তানকে কোলে নিয়ে তার স্ত্রী ইজিবাইকে বসে ছিল। একমাত্র ইজিবাইকটি তার উপার্জনের একমাত্র সম্বল।

জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী শান্তনা খাতুন বলেন, তার সামনেই তার স্বামীকে মারধর করা হয়েছে। ইজিবাইক ভাংচুরের সময় তিনি সন্তানকে কোলে নিয়ে বসে ছিলেন। ইজিবাইকের সামনের গ্লাস ভাংচুর করার সময় কাঁচের টুকরা তার ও সন্তানের শরীরে লাগে। তিনি এ ঘটনার বিচার দাবি করেন।

অভিযুক্ত হাসপাতালের পোর্টার সাইফুল ইসলাম জানান, তিনি হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার সময় তাকে ধাক্কা দেয় ইজিবাইকটি। এ সময় তার মোটরসাইকেলের একটি লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়। মারধর ও ইজিবাইক ভাংচুরের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি যদি মরে যেতাম? তখন আপনারা কি করতেন?

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলমগীর হোসেন জানান, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত ইজিবাইক মেরামতের জন্য জাহিদুল ইসলামের কালীগঞ্জ আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের পক্ষ থেকে দুই হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। এ সময় কালীগঞ্জ আঞ্চলিক ভাষা গ্রুপের এডমিন শাহরিয়ার আলম সোহাগ, সাংবাদিক শাহ আলম উপস্থিত ছিলেন।

The post ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ হাসপাতালে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কর্মচারীর মারধর/ইজিবাইক ভাংচুর appeared first on Jhenidaherchokh.

Leave a Reply

Your email address will not be published.