ঝিনাইদহে স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী নাজিরের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের সাধুহাটি বোড়াই গ্রামে মটর সাইকেল প্রতিকের প্রার্থী কাজী নাজির উদ্দীনের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। জানা যায়, সাধুহাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মটর সাইকেল প্রতিকের প্রার্থী কাজী মোঃ নাজির উদ্দিনের কয়েকজন কর্মী রাতে বোড়াই গ্রামের নির্বাচনী ক্যাম্পের সামনে পোস্টার লাগাচ্ছিল। সেসময় কয়েকজন ব্যক্তি তাদের বাধা দিয়ে নির্বাচনী অফিস ও সেখানে থাকার চেয়ার-টেবিল ভাংচুর করে পালিয়ে যায়। ঘটনার পরপরই রাতে সেখানে পরিদর্শন করেছেন থানা পুলিশের একাধিক টিম। এ বিষয়ে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী কাজী মোঃ নাজির উদ্দিন শনিবার দুপুরে জানান, আমার কর্মীদের পোস্টার লাগানোর সময় বাধা দেয় নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শফি উদ্দিন আহমেদ মিন্টুর সমর্থক আক্তারুজ্জামান ইকতার, হাশেম, হারুন, হৃদয়, পিন্টু সহ আরো কয়েকজন বাধা দেয়। সেসময় তারা আমার প্রচার অফিস, সেখানে থাকা চেয়ার-টেবিল সহ অন্যান্য আসবাবপত্র ভাংচুর করে। বিষয়টি জানতে পেরে আমি সেখানে উপস্থিত হওয়ার আগেই তারা পালিয়ে যায়। সেসময় স্থানীয় পুলিশ ক্যাম্প, সদর থানার ওসি এবং রিটার্নিং কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করি। তিনি আরো জানান, নির্বাচনে আমার জনপ্রিয়তাই ক্ষুব্ধ হয়ে তারা আমার প্রচার-প্রচারনায় বাধা সৃষ্টি করছে। অফিস ভাংচুর করছে, নেতাকর্মী নানা ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। এই ঘটনার সঠিক বিচার চেয়ে এবং স্বুস্থ নির্বাচনের পরিবেশ চেয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। আশা করি তারা সঠিক আইনগত ব্যবস্থা নেবে। বিষয়টি নিয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, মোখিক অভিযোগ পাওয়ার পর রাতেই আমি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সকল প্রার্থী যাতে সঠিক ভাবে আচরন বিধি মেনে প্রচারনা চালাতে পারে সে ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসন কঠোর অবস্থায় রয়েছে। ইউনিয়নটির দায়িত্বরত রিটার্নিং অফিসার জাহিদুল করিম জানান, কাজী নাজির উদ্দিনের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের বিষয়ে শনিবার দুপুরে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে অভিযুক্ত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী শফি উদ্দিন আহমেদ মিন্টু জানান, আমার নেতাকর্মীরা কোন প্রচার অফিস ভাংচুর করেনি। এটা নিয়ে মির্থা অভিযোগ করতে স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজির উদ্দিন। তার লোকজন ভেঙে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.