ঝিনাইদহে র‌্যাবের অভিযানে আতিয়ার হত্যা মামলার প্রধান আসামী আপন ভাতিজা গ্রেফতার

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে ঝিনাইদহ জেলার সদর থানাধীন চরখাজুরা এলাকায় পূর্বের পারিবারিক কলহ ও নিজ জমিতে বাঁশ কাঁটাকে কেন্দ্র করে ভিকটিম আতিয়ার রহমান(৬৫)কে তার আপন ভাতিজা রমজান আলী(২৪)নিজ হাতে এলোপাথাড়ি ভাবে মেরে ও পরবর্তীতে লাঠি দিয়ে আঘাত করে গুরুতর যখম ও আহত করে। অচেতন অবস্থায় পরবর্তীতে তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। এ বিষয়ে ভিকটিমের স্ত্রী মোছা: ছালেহা বেগম বাদী হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনাটি বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয় এবং জনমনে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। ঘটনার বিষয়ে র‌্যাব-৬, ঝিনাইদহের একটি চৌকস আভিযানিক দল ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং আসামী গ্রেফতারে গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত রাখে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১ মার্চ ২০২২ তারিখ র‌্যাব-৬, ঝিনাইদহের একটি চৌকস আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, উক্ত হত্যা মামলার প্রধান আসামী রমজান মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানা এলাকায় অবস্থান করছে। প্রাপ্ত সংবাদের সত্যতা যাচাই ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্দেশ্যে আভিযানিক দলটি একই তারিখ রাতে মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানাধীন খামারপাড়া বাজারস্থ গোরস্থান মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে নিজ চাচা হত্যা মামলার প্রধান পলাতক আসামী মোঃ রমজান আলী(২৪), পিতা- মো: আলামিন মন্ডল, সাং-চর খাজারা, খানা- ঝিনাইদহ সদর, জেলা- ঝিনাইদহ’কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে ঝিনাইদহ জেলার সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.