ঝিনাইদহে যবিপ্রবির বাস ভাংচুর, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ

ঝিনাইদহের চোখ-

ঝিনাইদহ-যশোর মহাসড়কের দুলাল মুন্দিয়া এলাকায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের একটি বাস ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় বাসটিতে থাকা কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত দুলাল মুন্দিয়া এলাকার লিটন হোসেন ও মনিরুজ্জামান রিংকুর নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন বিশ^বিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. হাসান মোহাম্মদ আল-ইমরান। কালীগঞ্জ থানা পুলিশ রাতেই প্রধান অভিযুক্ত লিটন হোসেনকে গ্রেফতার করেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে যশোর-ঝিনাইদহ সড়কের দুলাল মুন্দিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বাসের ড্রাইভার মিন্টু জানান, বাসটি বিশ^বিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে কালীগঞ্জের দিকে আসছিল। পথিমধ্যে দুলাল মুন্দিয়া এলাকায় একটি ট্রাক ওভারটেক করার সময় সামনে একটি মোটরসাইকেল আসে। এসময় বাসের ড্রাইভার ব্রেক করে দাঁড়িয়ে যান। এতে কারও কোন ক্ষতি না হলেও মোটরসাইকেলে থাকা লিটন নামের একজন সামনে মোটরসাইকেল রেখে গাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ অবস্থায় বাসের হেল্পার গেট লাগিয়ে দিলে দরজার কাঁচ ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে লিটন। এরপর তাকে সহ বাসটিতে থাকা শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের মারধর করেন। এরপর মনিরুজ্জামান রিংকু এসেও তাদের মারধর করেন।

কালীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় লিটন নামে একজনকে আটক করা হয়ছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। বাসটি কালীগঞ্জ থানার গেটে বর্তমানে অবস্থান করছে।

The post ঝিনাইদহে যবিপ্রবির বাস ভাংচুর, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ appeared first on Jhenidaherchokh.

Leave a Reply

Your email address will not be published.