ঝিনাইদহে প্রতিপক্ষের হামলায় মেম্বার প্রার্থীর মৃত্যু

এইচ এম ইমরান :
ঝিনাইদহের সদর উপজেলার ফুরসন্ধী ইউনিয়নে প্রতিপক্ষের মারধরে মাহমুদুল হক পলাশ মুন্সি (৫০) নামে এক ফুটবল প্রতীকের মেম্বার প্রার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার টিকারী গ্রামের নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। মৃতের পরিবারের দাবি, ইউপি নির্বাচন ঘিরে বুধবার রাতে মারধরের শিকার হন পলাশ। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সোহেল রানা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাতে তিনি জানান, বুধবার রাতে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু সাঈদ শিকদারের নির্বাচনি প্রচারের সময় ওই ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামে দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এরই জেরে রাতেই টিকারী বাজারে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল ইসলাম শিকদারের নির্বাচনী কার্যালয় ও দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এ সময় ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী পলাশকে মারধর করার অভিযোগ ওঠে। সকালে বাড়িতে মারা যান পলাশ।

নাড়িকেলবাড়ীয়া পুলিশ ক্যাম্পের এসআই তৌহিদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে অন্য পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। সেখানে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে এসআই তৌহিদুল আহত হলে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
তিনি জানান, এলাকায় উত্তেজনা আছে। সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদ শিকদার বলেন, গতকাল রাতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু সাঈদের সমর্থকরা আমার নির্বাচনী কার্যালয় ও ২টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও কয়েকজনকে মারধর করে আহত করে।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু সাঈদ বলেন, বুধবার রাতে আমার নির্বাচনী প্রচারণার সময় লক্ষীপুর গ্রামে ২টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে শহিদ শিকদারের সমর্থকরা।

The post ঝিনাইদহে প্রতিপক্ষের হামলায় মেম্বার প্রার্থীর মৃত্যু appeared first on শৈলবার্তা.

Leave a Reply

Your email address will not be published.