জামালপুরে আত্মহত্যা প্ররোচনায় প্রেমিকের নামে থানায় অভিযোগ

জামালপুরের মেলান্দহে ধর্ষণের শিকার হয়ে আশামণি (১৬) নামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর আত্মহত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ধর্ষক স্বপনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন ওই ছাত্রীর বাবা।

আজ শুক্রবার (১১ মার্চ) সকালে মেলান্দহের পৌর এলাকার শাহজাতপুর গ্রামের নিজবাড়ি থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে মেলান্দহ থানা পুলিশ।

নিহত ওই ছাত্রী শাহজাতপুর গ্রামের আবু মিয়ার মেয়ে। তিনি মালঞ্চ এম এ গফুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। ধর্ষক স্বপন মেলান্দহের চর বসন্ত গ্রামের খোকা মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আশামণি স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে স্বপন ও তার সঙ্গীরা উত্যক্ত করত। বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) স্কুলে যাওয়ার পথে তাকে তুলে নিয়ে একটি বাড়িতে ধর্ষণ করে স্বপন। ধর্ষণের ঘটনা মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে স্বপনের সঙ্গীরা। ঘটনা বাড়িতে জানালে ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরালের হুমকি দেওয়া হয়। পরে ওই দিন রাতেই গলায় উড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন আশা মণি।

মেলান্দহ থানার ওসি মো. মাঈদুল ইসলাম জানান, নিহতের বাবা বাদী হয়ে সমভ্রমহানির অভিযোগে তামিম আহমেদ খান স্বপনকে আসামি করে মেলান্দহ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর থেকেই স্বপন পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

ইমরান/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.