চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করলো শশুর বাড়ির লোকজন

গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নে ডাকাত সন্দেহে এক ব্যাক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে তার সাবেক শশুড় বাড়ির লোকজন। তবে নিহত ব্যাক্তির পরিবারের দাবি তার সাবেক স্ত্রীর সাথে প্রেমের সর্ম্পকের জের ধরে স্ত্রীর পরিবারের লোকজন তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

বুধবার রাতে সাখোয়াত তার তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী শিউলীর সাথে গোপনে দেখা করতে যায়। এসময় ঘরে থাকা শিউলীর স্বামী বায়োজিদ ইসলাম ও তার স্বজনরা ডাকাত এসেছে বলে চিৎকার করে গ্রামবাসীকে খবর দেয়।

গ্রামবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে লাঠিশোঠা নিয়ে সাকোয়াতকে মারপিট করে। ৯৯৯ এর মাধ্যমে সকালে খবর পেয়ে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় পরে স্বামী বায়োজিদ ও স্ত্রী শিউলীকে আটক করেছে পুলিশ।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি মাসুদুর রহমান জানান, গাইবান্ধা শহরের সরকার পাড়ার বাসিন্দা মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে সাখাওয়াত হোসেনের সাথে দুই বছর আগে খোলাহাটী ইউনিয়নের আনালেরতাড়ির বর্মত্বত গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর মেয়ে শিউলী বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য হওয়ায় দুজনের বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটে। বিচ্ছেদের পর শিউলি বেগমের সাথে একই গ্রামের বায়োজিত ইসলামের আবারও বিয়ে হয়। শিউলীর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ হলেও দুজনের মধ্যে গোপনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

সুমন/বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.