গ্রামের বাড়ি বরগুনায় নেওয়া হচ্ছে হাদিসুরের মরদেহ

ইউক্রেনে রকেট হামলায় নিহত ‌‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’র থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি বরগুনায় নেওয়া হচ্ছে। সোমবার(১৪ মার্চ) দুপুরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বরগুনার পথে হাদিসুরের মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্স রওনা দেয়।

এর আগে বেলা সোয়া ১২টার দিকে তার কফিন নিয়ে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট ঢাকায় পৌঁছায়। এ সময় পরিবারের সদস্য আর স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে ওঠে পরিবেশ।

বরগুনা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাছানুর রহমান রিমন মরদেহ সংগ্রহ করতে এসেছেন। হাদিসুরের বাবা ও মামা অসুস্থ হওয়ায় আগেই বাড়ি চলে যান। হাদিসুরের ছোট ভাই গোলাম মাওলা প্রিন্স, চাচাতো ভাই সোহাগ এবং খালা মমতাজ বেগম পরিবারের পক্ষ থেকে বিমানবন্দরে আসেন।

গত ২ মার্চ ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত হন হাদিসুর। পরদিন ৩ মার্চ জাহাজটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে নাবিকদের বাংলার সমৃদ্ধি থেকে নামিয়ে আনা হয়। সেখান থেকে একটি শেল্টার হাউজের বাংকারে ঠাঁই নেন নাবিকরা। আর হাদিসুরের মরদেহ রাখা হয়েছিল বাংকারের ফ্রিজারে।

উদ্ধার পাওয়ার তিন দিন পর দেশে ফেরার উদ্দেশে মলদোভা হয়ে ২৮ নাবিক রোমানিয়ায় পৌঁছান। এরপর রোমানিয়া থেকে গত ৯ মার্চ তারা দেশে ফেরেন।

বার্তাবাজার/জে আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.