গুরুদাসপুরে নিখোঁজ ইমান আলীর মরদেহ উদ্ধার

নাটোরের গুরুদাসপুরে আত্রাই নদীর শাখা নদীতে সাঁতার দিয়ে পার হওয়ার সময় ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া ইমান আলী (৫০) এর মরদেহ ২১ ঘন্টা পর উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ইউনিট।

শনিবার (৬ আগস্ট) সকাল আনুমানিক ১১টার সময় উপজেলার খুবজীপুর ইউনিয়নের খুবজীপুর গ্রামের আত্রাই নদীর শাখা নদী থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ইমান আলী উপজেলা পৌর সদরের চাঁচকৈড় শাহপাড়া মহল্লার মৃত-খয়ের মোল্লার ছেলে।

জানা যায়, শুক্রবার ৫ (আগস্ট) দুপুর আনুমানিক ২টার সময় উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের কালাকান্দর এলাকার শশুড় বাড়িতে যাওয়ার সময় আত্রাই নদীর শাখা নদীতে নৌকা না পেয়ে সাঁতার দিয়ে নদী পার হতে গিয়ে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয় ইমান আলী নামের এক ব্যক্তি।

পরে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষন করে রাজশাহী ডুবুরি ইউনিটকে খবর দেয়। ডুবুরি ইউনিট শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ওই শাখা নদীতে মরদেহ উদ্ধারের তৎপরতা চালায়। শনিবার সকাল ৮টা থেকে পুনরায় উদ্ধার কাজ শুরু করে ডুবুরি ইউনিট। সকাল আনুমানিক ১১টার দিকে যেখানে ডুবে ইমান আলী নিখোঁজ হয়েছিলো ঠিক সেই জায়গা থেকে প্রায় ২ কি.মি দুরে গিয়ে ইমান আলীর মরদেহ ভেসে উঠে। ভেসে উঠার পরে মরদেহটি উদ্ধার করেছে ডুবুরি ইউনিট।

গুরুদাসপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স স্টেশন অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন, নিখোঁজের দিন বিকেল সাড়ে ৪ টা থেকে রাত ৮ পর্যন্ত উদ্ধার কাজ চালানো হয়েছে। পরে সকাল ৮ টা থেকে পুনরায় উদ্ধার কাজ শুরু হয়। সকাল ১১টার সময় নিখোঁজের ২১ ঘন্টা পর পানিতে ডুবে নিখোঁজ হওয়া ইমান আলীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহটি তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

তানিম/বার্তাবাজার/এ.আর

Leave a Reply

Your email address will not be published.