October 2, 2022

মেহেরপুরের গাংনীতে গলায় ফাঁস দিয়ে তাপসী খাতুন (১৬) নামের এক নববধূর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২২মার্চ) সে তার স্বামীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

নিহত তাপসী খাতুন গাংনী উপজেলার করমদি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও একই গ্রামের বহলপাড়ার পলাশ এর স্ত্রী ও পার্শ্ববর্তী কল্যাণপুর গ্রামের মন্ডল পাড়ার সাবান আলীর মেয়ে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, তাপসী ও পলাশ একই সাথে লেখাপড়া করতো। গত চার মাস আগে তারা প্রেম সম্পর্কের জেরে বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করে। আজ দুপুরের খাবার খেয়ে এক সাথে দু’জন ঘুমাতে যায়। সবার চোখকে ফাঁকি দিয়ে তাপসী পাশের রুমে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পলাশের আত্মচিৎকারে প্রতিবেশীরা তাদের উদ্ধার করে,নিকটস্থ করমদি সন্ধানী মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাপসীকে মৃত ঘোষণা করেন।

তেতুঁলবাড়িয়া ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল ওহাব জানান, বাড়িতে পরিবারের সদস্য না থাকায় কি কারণে আত্মহত্যা করেছে তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছে না। তবে পারিবারিক কলহের জেরে আত্মহত্যা করতে পারে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

এ বিষয়ে গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, করমদি গ্রামে একজন আত্মহত্যা করেছে খবর পেয়েছি খোজখবর নেওয়া হচ্ছে।

মাসুদ/বার্তাবাজার/এম.এম

Leave a Reply

Your email address will not be published.