October 1, 2022

ভারতের উত্তর প্রদেশের মাথুরায় গরু পাচারের মিথ্যা অভিযোগে পিক-আপ ভ্যান চালক মুসলিম যুবককে (৩০) নির্মমভাবে লাঞ্ছিত করেছেন গ্রামবাসী। রোববার রাতে সেখানে এ ঘটনা ঘটে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবদনে বলা হয়, গ্রামবাসী গাড়িটির ভেতরে পশুর হাড় ও মৃতদেহ দেখতে পেয়ে গাড়িটিকে থামান। এরপর গ্রামবাসীদের কয়েকজন চালককে আটকে গরুর মাংস বিক্রি ও গরু পাচারের সন্দেহে তাকে লাঞ্ছিত করে।

তবে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে বেরিয়ে আসে-গাড়িটি গ্রাম পরিচ্ছন্নতা অভিযানের, যা পশুর মৃতদেহ সরানোর জন্য ব্যবহার করা হয়।

পুলিশ জানায়, হামলায় ওই ব্যক্তি সামান্য আহত হয়েছেন এবং তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, জনতা ওই যুবককে গালিগালাজ ও লাঞ্ছিত করছে এবং তার শার্ট ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে।

ভিডিওতে ওই যুবককে মাফ চাইতে দেখা যায়। কিন্তু কয়েকজন তা না করে তাকে চামড়ার বেল্ট দিয়ে মারধর করে। শুধু একজন ব্যক্তি হামলা থামানোর চেষ্টা করলেও বিক্ষুব্ধ জনতা তাকে দূরে সরিয়ে দেয়। আইপিসির সংশ্লিষ্ট ধারায় বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মাথুরার পুলিশ সুপার মার্তান্দ প্রকাশ সিং বলেন, আমরা জানতে পারি-মথুরার গোবর্ধন এলাকার বাসিন্দা রামেশ্বর বাল্মীকির কাছে পশুর মৃতদেহ ফেলার জন্য জেলা পঞ্চায়েতের লাইসেন্স আছে। তিনি গাড়িটি মথুরা থেকে নিকটস্থ একটি জেলায় পাঠিয়েছিলেন। আমাদের প্রাথমিক তদন্তে গাড়ির ভেতরে গরু বা গরুর মাংস পাওয়া যায়নি। ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা একটি এফআইআর নথিভুক্ত করেছি। সূত্র : এনডিটিভি

বার্তাবাজার/এম আই

Leave a Reply

Your email address will not be published.