কোহলিকে সরিয়ে নেতৃত্বে রোহিত, কেমন হবে ভারতের ড্রেসিং রুমের পরিবেশ

রোহিত শর্মার হাতেই যে ভারতের টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব যাচ্ছে সেটা অনেকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সেটিই সত্যি হলো। সাদা বলের ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব হারিয়েছেন বিরাট কোহলি। তার জায়গায় অধিনায়ক করা হয়েছে রোহিত শর্মাকে। একই সঙ্গে তাকে টেস্ট দলের সহ-অধিনায়কও করা হয়েছে। আর লাল বলের নেতৃত্ব কোহলির হাতেই থাকছে।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে তথ্যটি জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্তটি নিয়েছে সর্বভারতীয় সিনিয়র ক্রিকেট কমিটি। অবশ্য, কোচের দায়িত্ব নেওয়ার আগেই রাহুল দ্রাবিড় জানিয়েছিলেন, সাদা বলের ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে তার পছন্দ রোহিত শর্মা, আর লাল বলে বিরাট কোহলি।
ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন যুগ শুরু হচ্ছে আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজেই। ফলে এখন সবার মনেই একটা প্রশ্ন, রোহিত শর্মার অধীনে দলে বিরাট কোহলির ভূমিকা কেমন হবে? কিংবা ড্রেসিং রুমের পরিবেশটাই বা কী হবে? অথবা কোচ হিসেবে দলের সমন্বয় রক্ষায় রাহুল দ্রাবিড় কী পদক্ষেপ নেবেন।এদিকে, রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করায় অধিকাংশই বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। এক টুইট বার্তায় ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভন লিখেছেন, ‘খুবই ভালো সিদ্ধান্ত।’ তবে কেউ কেউ এটিকে সাধুবাদ জানালেও আশঙ্কা করছেন ড্রেসিং রুমের পরিবেশ কেমন হবে, সেটা নিয়ে।

এক টুইট বার্তায় ভারতীয় ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার ও বিশ্লেষক হার্সা ভুগলে বলেন, ‘বিরাট কোহলি যতই মহান খেলোয়াড় হোক, এখন তাকেও সেরার কাতারে পৌঁছাতে হবে। কিছু একটা হারিয়েছে, এটা সে অনুভবও করবে হয়তো। একটি দলে দুই অধিনায়ক থাকাটা সবসময়ই জটিল, বিশেষ করে যখন উভয়ই সব ফরম্যাটে খেলে। দ্রাবিড়, কোহলি ও রোহিতের একই লক্ষ্য ও স্বচ্ছন্দবোধ থাকাটাও এখন বড় চ্যালেঞ্জ।’

ভারতের সিনিয়র স্পোর্টস সাংবাদিক আয়াজ মেমনও একই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। টুইটে তিনি বলেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেটের এই পরিবর্তিত সময়ে, বিভিন্ন ফরম্যাটের অধিনায়কত্বে পরিবর্তন এবং ড্রেসিং রুমের পরিবেশ ঠিক রাখায় রাহুল দ্রাবিড়কে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। বিশেষ করে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মার মাঝে সমন্বয় রক্ষায় তাকে মাধ্যম বা বড় ভাইয়ের ভূমিকা নিতে হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.