October 2, 2022

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি
দেশের পশ্চিমাঞ্চলের স্বর্ণ, মাদক, অস্ত্র চোরাচালান ও ডাকাত সি-িকেটের গডফাদার কুখ্যাত সন্ত্রাসী ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের রেজাউল পাঠান ওরফে রেজাউল দালালকে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ আবারো একটি ডাকাতি মামলায় আটক করে মঙ্গলবার ৫দিনে রিমা- চেয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। রেজাউল দালাল কোটচাঁদপুর আখ সেণ্টার পাড়ার মৃত মমিন পাঠানের ছেলে। তার গ্রেপ্তারের খবরে এলাকায় মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে আসায় আনন্দ উল্লাস করতে দেখা গেছে।কোটচাঁদপুর থানার ওসি (তদন্ত) ইমরান আলম জানান, বেশ কিছুদিন আগে ঘটে যাওয়া একটি ডাকাতি মামলার আসামি রেজাউল পাঠান। এ মামলার তিনিই তদন্ত অফিসার। তিনি বলেন, এই সন্ত্রাসী রেজাউল পাঠানকে ধরতে অনেক দিন অনেক সময় ব্যয় করতে হয়েছে। গোপন সংবাদে সোমবার বিকালে তাকে আখ সেণ্টার মোড়ে অভিযান চালিয়ে তিনিসহ থানার এস আই আবদুল মান্নান রেজাউল দালালকে আটক করেন।এর আগে র‌্যাব সন্ত্রাসী রেজাউল দালালের কোটচাঁদপুর শহরের আখ সেণ্টার পাড়ায় তার বাসা থেকে ১টি বিদেশী পিস্তল, ৪০ রাউ- গুলি, বেশ কিছু ফেনসিডিল, ইয়াবা, চাইনিচ কুড়াল, হাসুয়া, ইয়ার গানের বাট, লক্ষাধীক নগদ টাকা ও পুলিশের পোশাকসহ রেজাউল দালালসহ তার দুই সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছিল। পরে জামিনে বেরিয়ে এসে আবারো অস্ত্রসহ ডিবির হাতে ধরা পড়ে, আবারো জামিনে বেরিয়ে এসে মহেশপুরে একটি বড় ধরণের স্বর্ণে চালান একটি বাস থেকে ডাকাতি করে নিয়ে যায়, এ ঘটনায় মহেশপুর থানায় ডাকাতি মামলা রুজু হয়। এরপর একের একে কোটচাঁদপুর ও মহেশপুর থানায় ডাকাতি, ছিনতাই, মাদক মামলাসহ অন্তত ৭টি মামলা হয়েছে। প্রতিবারই রেজাউল দালাল গ্রেপ্তার হলেও পরে জামিনে বেরিয়ে এসে র‌্যাব ও বিজিবি’র সোর্স হিসাবে কাজ করতে থাকে। পাশাপাশি বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যেতে থাকে। যে কারণে এলাকার সাধারণ মানুষ রেজাউল দালালের ভয়ে তটস্থ থাকতো। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.